প্রভাত বাংলা

site logo
Breaking News
||উত্তরপ্রদেশে রাহুল ও অখিলেশের সমাবেশে নিয়ন্ত্রণের বাইরে ভিড় পদদলিত হল, বহু আহত||টিম ইন্ডিয়ার কোচ হতে অস্বীকার করলেন জাস্টিন ল্যাঙ্গার ||কেজরিওয়ালকে বিজেপি অফিসে যেতে বাধা দেয় পুলিশ ,বিক্ষোভ শেষ ||টিএমসি বাংলার মা-মাটি ও মানুষকে গ্রাস করছে… পুরুলিয়ায় বললেন প্রধানমন্ত্রী মোদী||Swati Maliwal Case: মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনে পৌঁছেছে দিল্লি পুলিশ , সিসিটিভি ডিভিআর সহ অনেক জিনিস বাজেয়াপ্ত||রাজভবনের তিন কর্মচারীকে তলব করেছে পুলিশ||আইপিএল 2024: সিএসকে কোথায় ম্যাচ হেরেছে? এই খেলোয়াড়কে সবচেয়ে বড় অপরাধী বলা হচ্ছে||আফগানিস্তানে বৃষ্টি ও বন্যায় 370 জন মারা গেছে, 1600 জন আহত|| প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুকে হুমকি দিয়েছেন ইসরায়েলি মন্ত্রী, “গাজায় নতুন পরিকল্পনায় কাজ না করলে আমি আমার পদ ছেড়ে দেব”||কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সমাবেশের সময় সংঘর্ষ , বিজেপি-টিএমসি কর্মীরা মুখোমুখি ; অনেক আহত

Lok Sabha 2024 : বিরোধীদের সাফ জবাব দিলেন বাড়ির ছেলে ইউসুফ পাঠান

Facebook
Twitter
WhatsApp
Telegram
ইউসুফ পাঠান

ছক্কা ও চারের সাহায্যে নাগালের বাইরে থাকা ম্যাচ জিততে পারদর্শী ছিলেন তিনি। প্রথম আইপিএল ফাইনালেও ম্যান অফ দ্য ম্যাচ হয়েছিলেন তিনি। তিনি কলকাতা নাইট রাইডার্স দলের অন্যতম প্রধান স্তম্ভ ছিলেন যেটি দুইবার আইপিএল শিরোপা জিতেছিল। বুধবার সন্ধ্যায় ইউসুফ পাঠান বলেন, বাংলা তার দ্বিতীয় বাড়ি।সাদা শার্ট এবং হালকা নীল জিন্স পরা, স্থূল মুখের পাঠান দৃঢ় কণ্ঠে বলেন, ‘বাংলাই আমার দ্বিতীয় বাড়ি’, এবং তার চারপাশে যে বাহ্যিক বিতর্ক তৈরি হয়েছে তা মুহূর্তের মধ্যেই কেটে যাবে।

ব্রিগেড সমাবেশ থেকে প্রার্থী হিসেবে প্রাক্তন ক্রিকেটারের নাম ঘোষণা করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বহরমপুর তাদের নতুন যুদ্ধক্ষেত্র। পাঠানের নাম ঘোষণার পর থেকেই প্রশ্ন উঠছে জাতীয় দলের সাবেক এই তারকাকে নিয়ে। তার নাম বিদেশী উপাধির সাথে যুক্ত। প্রশ্ন উঠছে বাংলার বাতাসে সুদূর বরোদা থেকে বহরমপুর পর্যন্ত কেন প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা হল তাঁর নাম।

তিনি তার ক্রিকেট ক্যারিয়ারে বড় ছক্কা মারার জন্য বিখ্যাত ছিলেন। বুধবার সন্ধ্যায় ‘বহিরাগত’ গন্ধযুক্ত বাউন্সার এমন চিঠি ছুড়ে ফেলে। পাঠান তার পরিচিত ভঙ্গিতে বললেন, “কে বলেছে আমি বহিরাগত?” বাঙালি আমার দ্বিতীয় বাড়ি। কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলার সময় আমি বাংলায় থাকতাম। অনেকদিন পর কলকাতায় ফিরলাম। আমি এখানে থাকব. ,

কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলার সময় বাংলার সঙ্গে তাঁর যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল তা আজও অব্যাহত রয়েছে। তার নাম ঘোষণা করা হয় এবং প্রাক্তন ইস্ট ইন্ডিয়ার ক্রিকেটাররা তাকে নতুন ইনিংস শুরু করার জন্য অভিনন্দন জানান। জাতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় বলেছেন, পাঠানের লড়াইটা খুব কঠিন হতে চলেছে। ব্রেট লির মতো ফাস্ট বোলারকে সামলানো যতটা কঠিন, অভিজ্ঞ অধীর চৌধুরীকে সামলানোও ততটাই কঠিন।

প্রতিটি ইনিংসের শুরুতেই উত্তেজনা থাকে সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটারকে ঘিরে। মনের মধ্যে নানা চিন্তা ঘুরপাক খেতে থাকে। এই সময়ে পাঠানের মনে নিশ্চয়ই এমন চিন্তা ঘুরপাক খাচ্ছে। পাঠান বলেছেন, “আপনি যখন অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ক্রিকেট খেলতে যান, তখন প্রতিযোগিতাটা কঠিন। এখানেও লড়াই হবে। এবং যখন আমি কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে দ্রুততম ফিফটি করেছিলাম, তখন আপনি সব দেখেছিলেন। এ নিয়ে বিশেষ কিছু বলার নেই।”

তৃণমূল কংগ্রেস বারবার বিজেপিকে বহিরাগত বলেছে। বিধানসভা নির্বাচনের আগে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে ‘দৈনিক ভ্রমণকারী’ হিসাবে স্বাগত জানানো হয়েছিল। এরপর গঙ্গায় অনেক জল গড়িয়েছে। সারপ্রাইজ ব্রিগেড মিটিংয়ে ইউসুফ পাঠানের নাম ঘোষণা করে বিরোধী শিবিরকে বলার সুযোগ দেওয়া হলো! পাঠান নিজেই উত্তর দিয়েছিলেন, “বাংলা আমার দ্বিতীয় বাড়ি।” জয় বাংলা।”পাঠানের বিজয়ী বাংলা কণ্ঠ শোনাল যেন তিনি তার ক্রিকেট ক্যারিয়ারের মতোই আত্মবিশ্বাসী। বাহ্যিক বিতর্কে মনোযোগ না দেওয়া। তাঁর হৃদয় বাংলার সঙ্গে যুক্ত। এই বাংলায় যদি ভালোবাসার শিকড় না থাকে তাহলে কেউ কি নিশ্চিত হতে পারে!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর

ট্রেন্ডিং খবর