প্রভাত বাংলা

site logo
Breaking News
|| নাগাল্যান্ডের 6টি জেলায় একটিও ভোটার ভোট দেয়নি, পৃথক রাজ্যের দাবি উঠেছে; জেনে নিন কী বললেন মুখ্যমন্ত্রী||‘মানুষ রেকর্ড সংখ্যায় এনডিএ-কে ভোট দিচ্ছে’, প্রথম দফার ভোটের পরে বললেন প্রধানমন্ত্রী মোদি||বাচ্চাদের পর্নোগ্রাফি দেখা অপরাধ নাকি? পড়ুন সুপ্রিম কোর্টের বড় সিদ্ধান্ত||কেএল রাহুলের শক্তিতে চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে লখনউয়ের বড় জয়, 8 উইকেটে পরাজিত সিএসকে||গুজরাটে পাওয়া গেছে সবচেয়ে বড় সাপের ‘বাসুকি’র অবশেষ||ইসরায়েল প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করতে পারে আইসিসি|| লোকসভা নির্বাচনে ভোটের মধ্যে বিজেপিকে ধাক্কা! দল ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিলেন প্রাক্তন মন্ত্রী||পাঞ্জাবের সাঙ্গুর জেলে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, মৃত্যু ২ বন্দির; ২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক||প্রথম দফায় 21টি রাজ্যের 102টি আসনে 60.03% ভোট , দেখুন কোথায় এবং কতটা ভোট হয়েছে||ভোট দেওয়া দক্ষিণের বিখ্যাত অভিনেতার জন্য প্রমাণিত হল ব্যয়বহুল

মোদীকে ২৮ পয়সা পিএম বলেছেন উদয়নিধি স্টালিন

Facebook
Twitter
WhatsApp
Telegram
উদয়নিধি স্টালিন

শনিবার (23 মার্চ) তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এম কে স্টালিনের ছেলে এবং রাজ্য সরকারের মন্ত্রী উদয়নিধি স্টালিন, রাজ্য সরকারের তহবিল বরাদ্দের ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী মোদিকে বৈষম্যের অভিযোগ করেছেন।

স্ট্যালিন বলেছেন- এখন আমাদের প্রধানমন্ত্রী মোদিকে 28 পয়সা পিএম বলা উচিত। তামিলনাড়ু যদি কেন্দ্রীয় সরকারকে ট্যাক্স হিসাবে 1 টাকা দেয়, কেন্দ্র আমাদেরকে মাত্র 28 পয়সা ফেরত দেয়, যেখানে বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিতে অনেক বেশি তহবিল দেওয়া হয়।

স্টালিন রামানাথপুরম এবং থেনিতে পৃথক সমাবেশে তহবিলের বিষয়ে কেন্দ্রকে বৈষম্যের জন্য অভিযুক্ত করেছিলেন। এছাড়া জাতীয় শিক্ষানীতি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কেন্দ্রের এই নীতি রাজ্যের শিশুদের ভবিষ্যৎ নষ্ট করবে।

সিএম স্ট্যালিন বলেছেন- বিজেপি ক্ষমতায় এলে রাজ্যগুলি ধ্বংস হয়ে যাবে
তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী স্ট্যালিনও শনিবার লোকসভা নির্বাচনের জন্য থাঞ্জাভুরে কর্মীদের ভাষণ দিয়েছেন। এ সময় তিনি বলেন- বিজেপি আবার ক্ষমতায় এলে দেশ থেকে ফেডারেলিজম শেষ হয়ে যাবে। রাষ্ট্রের অস্তিত্ব বন্ধ হয়ে যাবে। তিনি বলেছিলেন যে 2024 ভারতে গণতন্ত্র চলবে কিনা তা নির্ধারণ করবে।

স্ট্যালিন বলেন, যেন জম্মু ও কাশ্মীর থেকে রাজ্যের মর্যাদা কেড়ে নেওয়া হয়েছে। একইভাবে, তামিলনাড়ু থেকেও রাজ্যত্ব ছিনিয়ে নেওয়া যেতে পারে। আমরা নিজের চোখে দেখেছি কিভাবে জম্মু ও কাশ্মীরকে দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে। জনগণের সঙ্গে পরামর্শ না করেই রাজ্যটিকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে রূপান্তরিত করা হয়। সেখানকার রাজনৈতিক নেতাদের গ্রেফতার করা হয়।

তিনি বলেন, 5 বছরের বেশি হয়ে গেছে। জম্মু ও কাশ্মীরে এখনও কোনো বিধানসভা হয়নি। এখনো নির্বাচন হয়নি। এটা বিজেপির একনায়কত্ব। বিজেপি ক্ষমতায় এলে তামিলনাড়ুতেও একই অবস্থা হতে পারে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর

ট্রেন্ডিং খবর