প্রভাত বাংলা

site logo
Breaking News
||সীতা কুন্ড: মা সীতার অগ্নিপরীক্ষা হয়েছিল এখানে, এই কুন্ডের জল সবসময় থাকে গরম ||তাহলে কি খুঁজে পাওয়া গেছে আলাদিনের আসল প্রদীপ? ‘জাদু’ দেখে স্তম্ভিত হয়ে যাবেন||নিজের ভবিষ্যৎ ঠিক করে ফেলেছেন এমএস ধোনি, বড় বিবৃতি দিলেন সিএসকে কোচ||ভুলেশ্বর মহাদেব: এই মন্দিরে পিন্ডির নিচে দেওয়া হয় প্রসাদ , সন্ধ্যা আরতির মাধ্যমে পাত্র খালি হয়ে যায়||অপেক্ষা শেষ, বর্ষা এসেছে; হলুদ সতর্কতা জারি করল IMD, জানুন কি বলছে সর্বশেষ আপডেট?||সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে আমেরিকার এনএসএ দেখা, প্রতিরক্ষা চুক্তি নিয়ে সমঝোতা ?||উত্তরপ্রদেশে রাহুল ও অখিলেশের সমাবেশে নিয়ন্ত্রণের বাইরে ভিড় পদদলিত হল, বহু আহত||টিম ইন্ডিয়ার কোচ হতে অস্বীকার করলেন জাস্টিন ল্যাঙ্গার ||কেজরিওয়ালকে বিজেপি অফিসে যেতে বাধা দেয় পুলিশ ,বিক্ষোভ শেষ ||টিএমসি বাংলার মা-মাটি ও মানুষকে গ্রাস করছে… পুরুলিয়ায় বললেন প্রধানমন্ত্রী মোদী

অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আগে এই মুখ্যমন্ত্রীদের গ্রেফতার করা হয়েছিল

Facebook
Twitter
WhatsApp
Telegram
অরবিন্দ কেজরিওয়াল

ভারতে সিএম গ্রেফতার : আম আদমি পার্টির জাতীয় আহ্বায়ক এবং দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে বৃহস্পতিবার তার বাড়ি থেকে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের একটি দল গ্রেপ্তার করেছিল। আগামীকাল কেজরিওয়ালকে আদালতে পেশ করা হবে। এই প্রথম দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী পদে থাকা অবস্থায় গ্রেফতার হলেন। যদিও এর আগেও অনেক প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অরবিন্দ কেজরিওয়াল হলেন প্রথম মুখ্যমন্ত্রী যিনি অফিসে থাকাকালীন গ্রেপ্তার হয়েছেন। এখন পর্যন্ত কোন কোন মুখ্যমন্ত্রীকে গ্রেফতার করা হয়েছে তা জেনে নেওয়া যাক।

হেমন্ত সোরেন
অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সামনে সর্বশেষ উদাহরণ হলেন ঝাড়খণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন। 31 জানুয়ারী 2024-এ তাকে গ্রেফতার করা হয়। বর্তমানে তিনি ইডি হেফাজতে রয়েছেন। তার বিরুদ্ধে জমি কেলেঙ্কারির অভিযোগ রয়েছে। তবে ইডি-র 8 ঘণ্টা জেরা করার পর রাজভবনে পৌঁছানোর পর তাঁকে পদত্যাগ করতে হয়। অর্থাৎ গ্রেফতারের আগেই তিনি পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছিলেন। এর পরে, চম্পাই সরেন বিধানসভায় ফ্লোর টেস্ট জিতে সরকার গঠনের দাবি করেন। এখন রাজ্যের ক্ষমতা দখল করছেন চম্পাই সোরেন।

লালু প্রসাদ যাদব
গ্রেফতার করা হয়েছে বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লালু প্রসাদ যাদবকেও। 1996 সালের 30 জুলাই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে, 25 জুলাই, 1996, পাটনার বিশেষ আদালত গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছিল। এরপরই মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিতে হয় লালুপ্রসাদ যাদবকে। 2013 সালে পশুখাদ্য কেলেঙ্কারিতে দোষী সাব্যস্ত হন RJD নেতা লালু প্রসাদ যাদব। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জগন্নাথ মিশ্রের সঙ্গে পশুখাদ্য কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত ছিলেন তিনি। লালু যাদব 1990 থেকে 1997 সাল পর্যন্ত বিহারের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন।

উমা ভারতী
উমা ভারতীকে 2004 সালে গ্রেফতার করা হয়। তিনি তখন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী। গ্রেফতারের আগেই তাকে পদত্যাগ করতে হয়। 1994 সালের 15 আগস্ট কর্ণাটকের হুবলি শহরের একটি মসজিদে পতাকা উত্তোলনের অভিযোগে অভিযুক্ত হন তিনি। এর পরেই দাঙ্গা শুরু হয় বলে অভিযোগ। তবে 10বছর পর তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর পরেও খবরে রয়েছেন পুলিশ অফিসার ডি. রূপা।

জে জয়ললিতা
এমনই কিছু ঘটেছে তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জে জয়ললিতার সঙ্গে। জয়ললিতা 1991 থেকে 2016 সাল পর্যন্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। 1996 সালে দুর্নীতির মামলায় গ্রেপ্তার হন তিনি। 2014 সালে আদালত কর্তৃক জয়ললিতাকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়। এর পর তাকে জেলে যেতে হয়। গ্রেফতারের আগেই তিনি পদত্যাগ করেছিলেন।

চন্দ্রবাবু নাইডু
একইভাবে গ্রেফতার করা হয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডুকেও। যদিও তিনি মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন না। দক্ষতা উন্নয়ন কেলেঙ্কারিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ঝাড়খণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মধু কোদা খান তাঁর আমলে জেলে গিয়েছেন। গ্রেফতার করা হয়েছে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী শিবু সরেনকেও। যদিও তখন তিনি মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন না।

ওম প্রকাশ চৌতালা
এছাড়া হরিয়ানার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওম প্রকাশ চৌতালাকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। যদিও তিনি তখন মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন না। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী চৌতালা 2013 সালে শিক্ষক নিয়োগ মামলায় দোষী সাব্যস্ত হন। এই মামলায় তাকে 10 বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। যেখানে 2022 সালে, তাকে অসামঞ্জস্যপূর্ণ সম্পদের মামলায় চার বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল। চৌতালা 1989 থেকে 2005 এর মধ্যে বেশ কয়েকবার হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন।

বিএস ইয়েদিউরপ্পা
কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদিউরপ্পাকেও 2011 সালে জমি কেলেঙ্কারিতে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। তবে এর প্রায় দুই মাস আগে তিনি পদত্যাগ করেন। তিনি আদালতে আত্মসমর্পণ করেছিলেন। তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এম করুণানিধিকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি 2001 সালে গ্রেফতার হন। যদিও তখন তিনি মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন না।

তবে ভারতে এখনও পর্যন্ত কোনো মুখ্যমন্ত্রীকে গ্রেফতার করা হয়নি। অরবিন্দ কেজরিওয়ালের ক্ষেত্রে এই প্রথম কোনও মুখ্যমন্ত্রী পদে থাকাকালীন গ্রেপ্তার হলেন। একজন মুখ্যমন্ত্রীকে গ্রেফতার করার জন্য আলাদা নিয়ম-কানুন আছে। আমরা আপনাকে বলি যে অফিসে থাকাকালীন রাষ্ট্রপতি এবং রাজ্যের রাজ্যপাল কর্ম থেকে মুক্ত।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর

ট্রেন্ডিং খবর