প্রভাত বাংলা

site logo
Breaking News
|| নাগাল্যান্ডের 6টি জেলায় একটিও ভোটার ভোট দেয়নি, পৃথক রাজ্যের দাবি উঠেছে; জেনে নিন কী বললেন মুখ্যমন্ত্রী||‘মানুষ রেকর্ড সংখ্যায় এনডিএ-কে ভোট দিচ্ছে’, প্রথম দফার ভোটের পরে বললেন প্রধানমন্ত্রী মোদি||বাচ্চাদের পর্নোগ্রাফি দেখা অপরাধ নাকি? পড়ুন সুপ্রিম কোর্টের বড় সিদ্ধান্ত||কেএল রাহুলের শক্তিতে চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে লখনউয়ের বড় জয়, 8 উইকেটে পরাজিত সিএসকে||গুজরাটে পাওয়া গেছে সবচেয়ে বড় সাপের ‘বাসুকি’র অবশেষ||ইসরায়েল প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করতে পারে আইসিসি|| লোকসভা নির্বাচনে ভোটের মধ্যে বিজেপিকে ধাক্কা! দল ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিলেন প্রাক্তন মন্ত্রী||পাঞ্জাবের সাঙ্গুর জেলে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, মৃত্যু ২ বন্দির; ২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক||প্রথম দফায় 21টি রাজ্যের 102টি আসনে 60.03% ভোট , দেখুন কোথায় এবং কতটা ভোট হয়েছে||ভোট দেওয়া দক্ষিণের বিখ্যাত অভিনেতার জন্য প্রমাণিত হল ব্যয়বহুল

এই ১০টি জিনিসের কারণে রমজানে রোজা ভেঙে যায়, জেনে নিন কী এড়িয়ে চলতে হবে

Facebook
Twitter
WhatsApp
Telegram
রমজান

রমজান মাস ইসলামি ক্যালেন্ডারের নবম মাস। সারা বিশ্বের মুসলমানদের জন্য এটি সবচেয়ে পবিত্র ও বিশেষ মাস। মুসলমানরা রমজানে মোট 29 বা 30টি রোজা পালন করে। রমজানের এই রোজাগুলো অত্যন্ত সম্মানের সঙ্গে পালন করা হয়। রোজা রাখার জন্য এর অনেকগুলো মূলনীতি মাথায় রাখা জরুরি। বলা হয়, ওই নীতিগুলো না মানলে রোজা ভেঙ্গে যেতে পারে। এই প্রবন্ধে আমরা আপনাকে বলব কোন পরিস্থিতিতে রোজা ভঙ্গ হয়।

রমজানের ফজিলত
দিল্লির ফতেহপুরী মসজিদের শাহী ইমাম ডক্টর মুফতি মোহাম্মদ মুকাররম আহমেদ বলেছেন যে রমজানের ফজিলত ভাষায় বর্ণনা করা কঠিন কারণ এটি রহমত, বরকত ও অগণিত বরকতের মাস যেখানে কুরআন নাজিল হয়েছে এবং যাতে নাজিল হয়। শয়তান পরাজিত হয়। এছাড়াও, এই পবিত্র মাসে মহান আল্লাহ তাঁর বান্দাদের জন্য তাঁর রহমতের দরজা খুলে দেন।

আট কারণে রমজান মাসের শ্রেষ্ঠত্ব

ইসলামের পবিত্র গ্রন্থ কুরআনের বহু আয়াত ও হাদিসে রমজানের ফজিলত বর্ণিত হয়েছে। কুরআনের সূরা বাকরার 185 নং আয়াতে লেখা আছে যে রমজান মাস যে মাসে কুরআন নাযিল হয়েছে মানুষের জন্য পথপ্রদর্শক এবং যাতে রয়েছে হেদায়েতের সুস্পষ্ট নিদর্শন, এই মাসে উপস্থিত প্রত্যেক ব্যক্তির উচিত পুরো মাস রোজা রাখা। এবং যারা অসুস্থ অথবা আপনি যদি ভ্রমণে থাকেন তবে অন্য দিনে রাখুন এবং গণনা সম্পূর্ণ করুন। (সূরা বাকরা আয়াত 185)

এছাড়া কুরআন মজীদে সূরা বাকরার 183  নং আয়াতে লেখা আছে যে, হে ঈমানদারগণ, তোমাদের উপর রোজা ফরজ করা হয়েছে, যেভাবে ফরজ করা হয়েছিল তোমাদের পূর্ববর্তীদের উপর, যাতে তোমরা মুত্তাকী হতে পার। (সূরা বাকরা আয়াত 183)

রোজা নিয়ে প্রায়শই মুসলমানদের মনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন আসে যে, কী কারণে রোজা ভেঙ্গে যায়, কারণ এই বিষয়গুলো জেনে আমরা আমাদের রোজা ভঙ্গ হওয়া থেকে বাঁচাতে পারি। রোজা ভঙ্গকারী জিনিস দুই ধরনের হতে পারে, প্রথমত শরীরে খাওয়া জিনিস এবং দ্বিতীয়টি হলো শরীর থেকে বের হওয়া জিনিস।

রমজান মাসের বিশেষ পুরস্কার

কি কি কারণে রোজা ভেঙ্গে যায়? (ইসলামে রোজা ভঙ্গ করা কি করে)
1. ইচ্ছাকৃতভাবে কিছু খাওয়া বা পান করলে রোযা ভেঙ্গে যায়। তবে ভুলবশত কিছু খেয়ে ফেললে রোজা ভাঙবে না। কোন ব্যক্তি ভুলবশত কিছু খেয়ে ফেললে তার রোযা পূর্ণ করতে হবে কারণ সে ইচ্ছাকৃতভাবে তা খায়নি।

2. ইচ্ছাকৃতভাবে বমি করলে রোজা ভেঙ্গে যায়, কিন্তু অসুস্থতার কারণে বমি হলে রোজা ভঙ্গ হয় না। নবী মুহাম্মদ বলেছেন, “যে ব্যক্তি নিজে থেকে বমি করে (তার রোজা অক্ষুণ্ণ) তার কাযা হবে না, এবং যদি সে ইচ্ছাকৃতভাবে বমি করে থাকে তবে তার রোযার কাযা আদায় করতে হবে, অর্থাৎ পরে রোযা রাখবে।”

3. রোজা অবস্থায় অন্তরঙ্গ হওয়াও রোজা ভেঙ্গে যাবে। এমতাবস্থায় রোযার শাস্তির সাথে কাফফারাও দিতে হবে। তবে স্ত্রীর কপালে চুমু দিলে রোজা ভাঙবে না।

রমজান মাস এবার ২৯, নাকি ৩০ দিনের?

4. রোজা অবস্থায় শরীরে শক্তি বা পুষ্টি জোগায় এমন কোনো জিনিস ইনজেকশন বা অন্য কোনো উপায়ে গ্রহণ করলেও রোজা ভেঙ্গে যাবে। তবে চিকিৎসার উদ্দেশ্যে ইনজেকশন দিলে রোজা ভঙ্গ হয় না।

5. ঋতুস্রাবের কারণে মহিলারাও তাদের রোজা ভঙ্গ করে। এমতাবস্থায় মহিলারা তাদের কাজা রোজা অর্থাৎ পরে বাদ পড়া রোজা পালন করতে পারেন।

6. বিড়ি, সিগারেট, হুক্কা বা পান-গুটখা খেলেও রোজা ভেঙ্গে যায়। ক্ষতস্থান থেকে রক্তপাত হলে রোজা ভঙ্গ হয় না।

7. লোবান বা ধূপের ধোঁয়ার গন্ধ পেলেও রোজা ভেঙ্গে যায়। কিন্তু রোজা রেখে সুগন্ধি লাগালে রোজা ভঙ্গ হয় না।

রমজান মাস শুরু হওয়ার ৪০ দিন বাকি

8. নামাযের জন্য অযু করার সময় গার্গল করার সময় মুখে পানি প্রবেশ করলে রোজা ভেঙ্গে যাবে এবং রোজা তার জায়গায় রাখতে হবে।

9. রোজা অবস্থায় কানে বা নাকে তেল বা কোনো ওষুধ বা ড্রপ দিলেও রোজা ভেঙ্গে যায়। এটা করার পর পরবর্তীতে কাযা রোজা রাখতে হবে। কোনো কারণে মুখ থেকে রক্তপাত হলে বা মাড়ি থেকে রক্তপাত হলে এবং তা গিলে ফেললে রোজা ভেঙ্গে যাবে।

10. চুইংগাম চুইংগাম অবশ্যই রোজা ভঙ্গ করে। এছাড়া রোজা অবস্থায় দাঁত ব্রাশ করলে এবং মুখে পানি চলে গেলেও রোজা ভেঙ্গে যেতে পারে। আপনি সেহরির আগে এবং ইফতারের পরে আপনার দাঁত ব্রাশ করতে পারেন, তবে আপনি যদি নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধের ভয় পান তবে নবী মুহাম্মদের সুন্নাহ অনুসরণ করে ব্রাশের পরিবর্তে মিসওয়াক (টুথব্রাশ) ব্যবহার করার পরামর্শ দেওয়া হয়।

আগামীকাল থেকে পবিত্র মাহে রমজান শুরু | শিরোনাম | বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা  (বাসস)

রোযার কাফফারা
রোজা ভেঙ্গে গেলে বা ছুটে গেলে কাফফারা দিতে হবে। রোযার কাফফারা দিতে বলা হয়েছে, হয় একজন গোলাম আযাদ করতে হবে, অথবা একজনকে 60 দিন একটানা রোযা রাখতে হবে, অথবা একজন 60 জন মিসকীনকে খাওয়াতে হবে, অথবা আল্লাহ আপনাকে যা কিছু দিয়েছেন। আপনার সামর্থ্য অনুযায়ী অর্থাৎ দান করুন। এটি হাদীস দ্বারা প্রমাণিত রোযার কাফফারা।

ভারত এবং বিদেশের সর্বশেষ খবর, আপডেট এবং বিশেষ গল্প পড়ুন এবং নিজেকে আপ-টু-ডেট রাখুন, Google NewsX (Twitter), Facebook-এ আমাদের অনুসরণ করুন, https://prabhatbangla.com/

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর

ট্রেন্ডিং খবর