প্রভাত বাংলা

site logo
Breaking News
|| এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা জিতেছেন দীপা কর্মকার||‘KKR  এর  জয়ের জাদু শিখিয়ে আইপিএলের ‘বাদশা’ হলেন শাহরুখ!||আইপিএল 2024  পার্পল ক্যাপ জিতেছেন হারশাল প্যাটেল এই কিংবদন্তির সমান দ্বিতীয়বারের মতো পুরস্কার||IPL 2024 Final:  10 বছর পর শিরোপা জিতেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স, জয়ের নায়ক এই খেলোয়াড়রা||IPL 2024: ফাইনালে হায়দরাবাদের লজ্জাজনক পরাজয়, এই পরাজয়ের 5জন দোষী||মিচেল স্টার্ক: 2 কোটি বেস প্রাইস, 24.75 কোটি দাম…যখন নিলামে  ট্রোলড হয়েছিলেন গৌতম গম্ভীর||Cyclone Remal : বাংলায় মধ্যরাতে  আঘাত হানবে ‘রেমাল’ , বাতাস বইবে 135 বেগে, পর্যালোচনা সভা করলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী||IPL 2024 Final SRH v KKR LIVE : তৃতীয়বারের মতো আইপিএল শিরোপা জিতেল KKR||Cyclone Remal : রেমাল এখন ক্যানিং থেকে ১৯০ কিলোমিটার দূরে, ছয়টি দক্ষিণ জেলায় রেড অ্যালার্ট, উত্তরও প্রভাবিত||Horoscope Tomorrow :  মেষ, বৃষ, কন্যা, ধনু রাশির মানুষদের এই কাজগুলি করা উচিত নয়, জেনে নিন আপনার আগামীকালের রাশিফল

Sachin Pilot : শচীন পাইলট ও সারার বিবাহবিচ্ছেদ… হলফনামার মাধ্যমে প্রকাশ্যে এল গোপন রহস্য

Facebook
Twitter
WhatsApp
Telegram
শচীন পাইলট

মঙ্গলবার বিকেলে টঙ্ক বিধানসভা কেন্দ্র থেকে কংগ্রেস প্রার্থী শচীন পাইলট মনোনয়ন জমা দেন। সিভিল লাইনে নির্মিত আরও অফিসে রিটার্নিং অফিসারের সামনে মনোনয়ন জমা দেওয়া হয়। এসময় তার সমর্থকদেরও ভিড় জমে যায়। এর আগে সকাল সাড়ে 11 টার দিকে ভুতেশ্বর মহাদেব মন্দির থেকে পাইলটের মনোনয়ন র‌্যালি শুরু হলে তিনি মন্দিরে প্রার্থনা করে বিজয়ের প্রার্থনা করেন।

এরই মধ্যে শচীন পাইলটের হলফনামায় একটি বড় তথ্য উঠে এসেছে। কংগ্রেস প্রার্থী হিসেবে যে মনোনয়নের হলফনামা দাখিল করেছেন, তাতে স্ত্রীর নামের বিপরীতে ডিভোর্স দেখিয়েছেন তিনি। প্রেসক্রিপশন সহ শচীন পাইলটের দেওয়া হলফনামায় এটি উল্লেখ করা হয়েছে। পাইলটের দুই সন্তান, আরএন পাইলট এবং বিহান পাইলট। পাইলট উনিশ বছর আগে সারা পাইলটের সাথে বিয়ে করেছিলেন। পাইলটের জমা দেওয়া হলফনামায় তাদের বিবাহবিচ্ছেদের বাস্তবতা বেরিয়ে এসেছে। তবে এটিও মানুষের মধ্যে আলোচনার বিষয় হয়ে উঠেছে।

পাইলটের প্রেমের গল্প সম্পূর্ণ ফিল্মি
পাইলটের প্রেমের গল্প সম্পূর্ণ ফিল্মি। শচীন আমেরিকার পেনসিলভানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়ার্টন স্কুলে ছিলেন। সেই সময় তিনি জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহর মেয়ে এবং ওমর আবদুল্লাহর বোন সারার সঙ্গে দেখা করেন। শচীন পাইলট 2004 সালের জানুয়ারিতে সারা পাইলটকে বিয়ে করেন। বিয়ের কয়েক মাস পরই রাজনীতির মাঠে নামলেন শচীন পাইলট। মাত্র 26 বছর বয়সে, তিনি দৌসা থেকে তার প্রথম লোকসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে এবং বিপুল ব্যবধানে জয়ী হয়ে সর্বকনিষ্ঠ এমপি হয়েছিলেন। ডিসেম্বর 2018 সালে, যখন শচীন পাইলট ডেপুটি সিএম হিসেবে শপথ নেন, সারা পাইলট, উভয় ছেলে এবং ফারুক আবদুল্লাহও শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

দুপুর সোয়া 2 টার পর মনোনয়ন দাখিল করা হয়
একই সময়ে দুপুর সোয়া 2 টার দিকে রিটার্নিং অফিসারের কাছে মনোনয়ন দাখিল করেন শচীন পাইলট। তার সমর্থকদের নির্ধারিত ব্যারিকেডের বাইরে আটকানো হয়। তার সঙ্গে শুধু প্রস্তাব দেখা গেছে। টঙ্কে এই দ্বিতীয়বার, যখন তিনি দ্বিতীয়বার মনোনয়ন জমা দিয়েছেন।

সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে নির্বাচনে লড়বে
এই উপলক্ষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে পাইলট বলেন যে কংগ্রেস দল নির্বাচনে ঐক্যবদ্ধ। সবাই একসঙ্গে নির্বাচনে লড়বেন। এখন পর্যন্ত যা কিছু হয়েছে, সে বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা ক্ষমা করে দিয়ে এগিয়ে যাওয়ার নীতি অনুসরণ করছি। মুখ্যমন্ত্রীর নাম ঘোষণার প্রশ্নে তিনি বলেন, কংগ্রেস মুখ্যমন্ত্রীর মুখ আগে থেকে ঘোষণা করে না। সংখ্যাগরিষ্ঠতার পর হাইকমান্ডই সিদ্ধান্ত নেয়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর

ট্রেন্ডিং খবর