প্রভাত বাংলা

site logo
Breaking News
||সীতা কুন্ড: মা সীতার অগ্নিপরীক্ষা হয়েছিল এখানে, এই কুন্ডের জল সবসময় থাকে গরম ||তাহলে কি খুঁজে পাওয়া গেছে আলাদিনের আসল প্রদীপ? ‘জাদু’ দেখে স্তম্ভিত হয়ে যাবেন||নিজের ভবিষ্যৎ ঠিক করে ফেলেছেন এমএস ধোনি, বড় বিবৃতি দিলেন সিএসকে কোচ||ভুলেশ্বর মহাদেব: এই মন্দিরে পিন্ডির নিচে দেওয়া হয় প্রসাদ , সন্ধ্যা আরতির মাধ্যমে পাত্র খালি হয়ে যায়||অপেক্ষা শেষ, বর্ষা এসেছে; হলুদ সতর্কতা জারি করল IMD, জানুন কি বলছে সর্বশেষ আপডেট?||সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে আমেরিকার এনএসএ দেখা, প্রতিরক্ষা চুক্তি নিয়ে সমঝোতা ?||উত্তরপ্রদেশে রাহুল ও অখিলেশের সমাবেশে নিয়ন্ত্রণের বাইরে ভিড় পদদলিত হল, বহু আহত||টিম ইন্ডিয়ার কোচ হতে অস্বীকার করলেন জাস্টিন ল্যাঙ্গার ||কেজরিওয়ালকে বিজেপি অফিসে যেতে বাধা দেয় পুলিশ ,বিক্ষোভ শেষ ||টিএমসি বাংলার মা-মাটি ও মানুষকে গ্রাস করছে… পুরুলিয়ায় বললেন প্রধানমন্ত্রী মোদী

উন্মোচিত হলো মহাবিশ্বের রহস্য! পৃথিবী ও মঙ্গলের ‘বন্ধুত্ব’ ২৪ লাখ বছর ধরে

Facebook
Twitter
WhatsApp
Telegram
মঙ্গল

মঙ্গল এবং পৃথিবীর মধ্যে সংযোগ প্রকাশ: আমাদের পৃথিবী এবং মঙ্গল গ্রহের মধ্যে দূরত্ব 14 কোটি মাইল হতে পারে, কিন্তু বিজ্ঞানীরা এই দুটি গ্রহের মধ্যে একটি বিশেষ সংযোগ আবিষ্কার করেছেন। সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা আমাদের গ্রহের গভীর মহাসাগরে চলমান একটি বিশাল 2.4-মিলিয়ন বছর বয়সী ঘূর্ণির চক্র আবিষ্কার করেছেন।

গবেষকদের মতে, এই চক্রগুলি 40 মিলিয়ন বছরেরও বেশি সময় ধরে চলছে। এই আন্ডারওয়াটার সার্কুলেশনের সংযোগ পৃথিবী এবং মঙ্গল গ্রহের মধ্যকার মহাকর্ষীয় মিথস্ক্রিয়াগুলির সাথে যুক্ত। এই গ্রহটি প্রতি কয়েক মিলিয়ন বছরে আমাদের পৃথিবীকে সূর্যের কাছাকাছি টেনে নেয়।

গবেষণার জন্য সমুদ্রের তলায় 370টি গর্ত ড্রিল করা হয়েছে
দুটি গ্রহের মধ্যে এই সমন্বয় পৃথিবীর জলবায়ুকে প্রভাবিত করার জন্য যথেষ্ট। গবেষকরা দেখেছেন যে এই চক্রের সময়, সৌর শক্তি বৃদ্ধি পেয়েছে এবং আবহাওয়া উষ্ণ হয়ে উঠেছে। পৃথিবী এবং মঙ্গল গ্রহের মধ্যে সংযোগ খুঁজে বের করতে, গবেষকদের দল পৃথিবীর বিভিন্ন মহাসাগরে 370টি গভীর গর্ত ড্রিল করেছিল।

সমুদ্রের তলদেশের নমুনায় এ তথ্য বেরিয়ে এসেছে
সমুদ্রের তলদেশে পলি বিশ্লেষণের জন্য নেওয়া নমুনাগুলি দুর্বল এবং শক্তিশালী হওয়ার চক্র দেখায়। এটি নির্দেশ করে যে গভীরতায় কী বিশাল প্রচলন চলছে। রিসার্চ লিড ডক্টর অ্যাড্রিয়ানা বলেন, আমরা এটা দেখে অবাক হয়েছি।

তিনি বলেছিলেন যে এটি ব্যাখ্যা করার একমাত্র উপায় রয়েছে, তারা সূর্যের চারপাশে ঘোরে মঙ্গল এবং পৃথিবীর মধ্যে মিথস্ক্রিয়া চক্রের সাথে যুক্ত। দুটি গ্রহের মধ্যকার এই ক্রিয়াকে ‘অনুরণন’ বলে। এর মানে হল যে দুটি বস্তু সূর্যকে প্রদক্ষিণ করে মাধ্যাকর্ষণ শক্তি ব্যবহার করে একে অপরের দিকে টানা হয়।

প্রথমবারের মতো আবিষ্কৃত একটি গ্রহের সাথে সংযোগ
আসুন আমরা আপনাকে বলি যে চাঁদের মাধ্যাকর্ষণ শক্তি দ্বারা সৃষ্ট টানের কারণে জোয়ারের উদ্ভব হয়। কিন্তু এই গবেষণায় প্রথমবারের মতো প্রকাশ পেয়েছে কোনো গ্রহের মাধ্যাকর্ষণ শক্তি পৃথিবীর ওপরও প্রভাব ফেলছে। নতুন এই আবিষ্কার অনেক রহস্যের সমাধানে সাহায্য করবে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা। গবেষকদের মতে, প্রাচীনকালে সমুদ্রের উষ্ণতা বৃদ্ধিতে এই ঘূর্ণিগুলির একটি বড় ভূমিকা ছিল।

ভারত এবং বিদেশের সর্বশেষ খবর, আপডেট এবং বিশেষ গল্প পড়ুন এবং নিজেকে আপ-টু-ডেট রাখুন, Google NewsX (Twitter), Facebook-এ আমাদের অনুসরণ করুন, https://prabhatbangla.com/

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর

ট্রেন্ডিং খবর