প্রভাত বাংলা

site logo
Breaking News
||‘দলবিরোধী’ কার্যকলাপের জন্য বিনয় তামাংকে ৬ বছরের জন্য বহিষ্কার করল কংগ্রেস||সিঙ্গাপুরে ভারতীয় বংশোদ্ভূত পুরুষের 20 বছরের সাজা||ইন্দোনেশিয়ায় আগ্নেয়গিরি দেখতে যাওয়া মহিলা পাহাড় থেকে পড়ে মৃত্যু||ব্রিটেনের পার্লামেন্টে রুয়ান্ডা বিল পাস,  অবৈধ শরণার্থীদের আফ্রিকায় ফেরত পাঠাবে||নির্বাচন কমিশনের কাছে কলকাতা হাইকোর্টের আবেদন – ‘বহরমপুরের ভোট পিছিয়ে দিতে ’ ||কেরালার বিধায়ক বলেছেন- রাহুলকে তার ডিএনএ পরীক্ষা করানো উচিত||তেলেঙ্গানায় ভেঙে পড়েছে 8 বছর ধরে নির্মিত সেতু, প্রবল বাতাসের কারণে দুটি কংক্রিটের গার্ডার ভেঙে পড়েছে||ইংলিশ চ্যানেল পার হতে গিয়ে শিশুসহ পাঁচজনের মৃত্যু, সৈকতে পাওয়া গেছে মৃতদেহ ||এখন এই দলের খেলা নষ্ট করতে পারে RCB, প্লে-অফে সংকট হতে পারে||বিশ্ববিদ্যালয় আইন সংশোধনী বিল স্বাক্ষর না করায় রাজ্যপালের বক্তব্য শুনতে নোটিশ জারি করল সুপ্রিম কোর্ট

ব্যানার নেই, সন্দেশখালীতে তৃণমূলের প্রচার নেই, নেতারা দ্বারে দ্বারে ক্ষমা চাইছেন

Facebook
Twitter
WhatsApp
Telegram
সন্দেশখালী

উত্তর 24 পরগনা জেলার বসিরহাট হারানো আসনটি এবার তৃণমূল কংগ্রেসের জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এর বড় কারণ নারীদের যৌন হয়রানি ও জমি দখলের অভিযোগে শিরোনামে থাকা সন্দেশখালী। তৃণমূল নেতা শাহজাহান শেখ, সিবু হাজরা ও উত্তম সরদার এই মামলার প্রধান আসামি। এ কারণে এখানে প্রচারণা এড়িয়ে চলছেন তৃণমূল নেতারা। এমনকি এখানে তৃণমূলের ব্যানার-পোস্টারও নেই। নির্বাচন নির্ভর করছে স্থানীয় নেতাদের ওপর, যারা দ্বারে দ্বারে গিয়ে ক্ষমা প্রার্থনা করছেন।

সন্দেশখালি বেদমজ্জুর পঞ্চায়েতের তৃণমূল নেতা হলধর আদি বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে দলের কিছু নেতার নৃশংসতার জন্য আমাদের ক্ষমা চাইতে হবে। মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। আমরা তাদের আশ্বস্ত করছি যে তৃণমূল জিতলে অভিযুক্ত তিন নেতাকে সঙ্গে রাখবে না। ব্লক নির্বাচন কমিটির সদস্য প্রসেনজিৎ গাঙ্গুলি বলেছেন, আমরা লোকদের বলছি যে তিন অভিযুক্তই বামফ্রন্ট আমলের। তারা মূলত তৃণমূলের নয় এবং ভবিষ্যতেও থাকবে না।

সাংসদ নুসরাত জাহানের টিকিট কাটলেন তৃণমূল, মাঠে নামলেন ইসলাম
নির্বাচন পরিচালনার জন্য সন্দেশখালীর দুটি ব্লকে দুটি পৃথক নির্বাচন কমিটি গঠন করেছে তৃণমূল। তাদের সামলাচ্ছেন স্থানীয় বিধায়ক সুকুমার মাহাতো।

অভিনেত্রী নুসরাত জাহান 2019 সালে তৃণমূলের টিকিটে এখান থেকে জয়লাভ করেছিলেন, কিন্তু সন্দেশখালি ঘটনার সময় তার মনোভাব দলটিকে অসম্মানিত করেছিল। তাই নুসরাতের টিকিট বাতিল করে প্রাক্তন সাংসদ হাজী নূরুল ইসলামকে টিকিট দিয়েছেন মমতা ব্যানার্জি। 2009 সালে এ আসন থেকে বিজয়ী হন ইসলাম। অন্যদিকে সন্দেশখালির ভুক্তভোগী রেখা পাত্রকে এই আসন থেকে প্রার্থী করেছে বিজেপি।

তৃণমূল নেতারা যতই ক্ষমা প্রার্থনা করুক না কেন, জনগণ ক্ষমা করবে না: বিজেপি
সন্দেশখালিতে বিজেপি নেতারা দ্বারে দ্বারে ঘুরে তিন অভিযুক্ত তৃণমূল নেতার অপকর্মের বর্ণনা দিচ্ছেন। স্থানীয় নেতা বিকাশ সিং বলেছেন- তৃণমূল যতই ক্ষমা চাইুক না কেন, মানুষ ক্ষমা করবে না। আসুন আমরা আপনাকে বলি যে বিজেপি পুরো রাজ্যে সন্দেশখালি ইস্যুকে জোরালোভাবে তুলছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তাঁর চার জনসভায় এই প্রসঙ্গটি তুলে ধরেছেন।

লোকসভা নির্বাচনের জন্য বাংলায় 7 দফায় ভোট হচ্ছে
শনিবার (16 মার্চ) দেশের সব রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে লোকসভা নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। মোট 543 টি আসনে সাত ধাপে নির্বাচন হবে। প্রথম ধাপের ভোট 19 এপ্রিল এবং শেষ ধাপের ভোট 1 জুন অনুষ্ঠিত হবে। ফল আসবে 4 জুন। পশ্চিমবঙ্গের 42টি লোকসভা আসনের জন্য 7 দফায় ভোট হবে।

2019 লোকসভা নির্বাচনে, টিএমসি 22টি আসন জিতেছে এবং বিজেপি 18টি আসন জিতেছে
2019 সালের লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি এবং তৃণমূলের মধ্যে ঘনিষ্ঠ প্রতিদ্বন্দ্বিতা ছিল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন তৃণমূল কংগ্রেস 42টি আসনের মধ্যে 22টি আসন পেয়েছে, আর বিজেপি 18টি আসন পেয়েছে। বাকি দুটি আসন কংগ্রেস জিতেছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর

ট্রেন্ডিং খবর