প্রভাত বাংলা

site logo
Breaking News
|| অমিত শাহের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন 11 জন মুসলিম প্রার্থী, দেখুন কে বাজি খেলেছে এবং কে স্বতন্ত্র||পাকিস্তানে ভারী বর্ষণে ৮৭ জনের মৃত্যু, সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর||রাহুল গান্ধীর দিকে কটাক্ষ করলেন কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন, মনে করিয়ে দিলেন তাঁকে তাঁর ঠাকুরমার কথা||ইরান যে দেশটিকে হুমকি মনে করে, ইসরাইল তার সাহায্য নিয়েছিল হামলার জন্য|| শীঘ্রই একটি যৌথ ইশতেহার জারি করবে INDIA জোট, এই 7টি বড় প্রতিশ্রুতি দেওয়া হবে||জেনে নিন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সম্পত্তি কত!|| নাগাল্যান্ডের 6টি জেলায় একটিও ভোটার ভোট দেয়নি, পৃথক রাজ্যের দাবি উঠেছে; জেনে নিন কী বললেন মুখ্যমন্ত্রী||‘মানুষ রেকর্ড সংখ্যায় এনডিএ-কে ভোট দিচ্ছে’, প্রথম দফার ভোটের পরে বললেন প্রধানমন্ত্রী মোদি||বাচ্চাদের পর্নোগ্রাফি দেখা অপরাধ নাকি? পড়ুন সুপ্রিম কোর্টের বড় সিদ্ধান্ত||কেএল রাহুলের শক্তিতে চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে লখনউয়ের বড় জয়, 8 উইকেটে পরাজিত সিএসকে

শিক্ষকদের জন্য ড্রেস কোড জারি করেছে মহারাষ্ট্র সরকার; সম্পূর্ণ নির্দেশিকা পড়ুন

Facebook
Twitter
WhatsApp
Telegram
মহারাষ্ট্র

মুম্বই: মহারাষ্ট্র সরকার স্কুল শিক্ষকদের জন্য একটি নতুন আদেশ কার্যকর করেছে। আসলে, সরকার এখন শিক্ষকদের জন্য একটি ড্রেস কোড জারি করেছে। এই ড্রেস কোডে অনেক বিধিনিষেধও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। সরকারের জারি করা ড্রেস কোড অনুযায়ী এখন শিক্ষকদের জিন্স, টি-শার্ট, ডিজাইনার ও প্রিন্ট করা পোশাক পরতে হবে না। সরকার এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপনও জারি করেছে। জারিকৃত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, শিক্ষকদের পোশাক-আশাকের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। শিক্ষকদের অনুপযুক্ত পোশাক স্কুলগামী শিশুদের উপর বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে।

কী পরবেন আর কী পরবেন না?
সরকার কর্তৃক জারি করা নির্দেশিকা অনুসারে, পুরুষ এবং মহিলাদের জন্য পৃথক ড্রেস কোড কার্যকর করা হয়েছে। প্রথমত, মহিলাদের ড্রেস কোডের কথা বলছি, মহিলা শিক্ষকদের জিন্স এবং টি-শার্ট, গাঢ় রং বা ডিজাইন বা প্রিন্টের পোশাক পরতে দেওয়া হবে না। পাশাপাশি বলা হয়েছে, মহিলা শিক্ষকদের কুর্তা-দুপাট্টা এবং সালোয়ার বা চুড়িদার পরতে হবে। এছাড়া মহিলা শিক্ষকরাও শাড়ি পরতে পারেন। পুরুষ শিক্ষকদের জন্য, শার্ট এবং প্যান্ট পরার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে, যাতে শার্টটি বাইরে না হয় তবে প্যান্টের মধ্যে আটকে রাখা উচিত।

শিক্ষকরা প্রতিবাদ জানান
পাশাপাশি এটাও স্পষ্ট করা হয়েছে যে এই নিয়ম শুধু সরকারি স্কুলের শিক্ষকদের জন্য নয়, বেসরকারি স্কুলের শিক্ষকদের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য হবে। তবে এর বিরোধিতা করেছেন শিক্ষকরা। শিক্ষকরা বলছেন কী পরবেন এবং কী পরবেন না তা ব্যক্তিগত বিষয় এবং স্থানীয় বিশেষাধিকার। শিক্ষকরা ইতিমধ্যেই এ বিষয়ে সচেতন। প্রকৃতপক্ষে, শিক্ষকদের পোশাক যাতে শিক্ষার্থীদের উপর বিরূপ প্রভাব না ফেলে সে বিষয়টি মাথায় রেখেই ড্রেস কোড তৈরি করা হয়েছে বলেও সরকার স্পষ্ট করেছে।

ভারত এবং বিদেশের সর্বশেষ খবর, আপডেট এবং বিশেষ গল্প পড়ুন এবং নিজেকে আপ-টু-ডেট রাখুন, Google NewsX (Twitter), Facebook-এ আমাদের অনুসরণ করুন, https://prabhatbangla.com/

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর

ট্রেন্ডিং খবর