প্রভাত বাংলা

site logo
Breaking News
||‘দলবিরোধী’ কার্যকলাপের জন্য বিনয় তামাংকে ৬ বছরের জন্য বহিষ্কার করল কংগ্রেস||সিঙ্গাপুরে ভারতীয় বংশোদ্ভূত পুরুষের 20 বছরের সাজা||ইন্দোনেশিয়ায় আগ্নেয়গিরি দেখতে যাওয়া মহিলা পাহাড় থেকে পড়ে মৃত্যু||ব্রিটেনের পার্লামেন্টে রুয়ান্ডা বিল পাস,  অবৈধ শরণার্থীদের আফ্রিকায় ফেরত পাঠাবে||নির্বাচন কমিশনের কাছে কলকাতা হাইকোর্টের আবেদন – ‘বহরমপুরের ভোট পিছিয়ে দিতে ’ ||কেরালার বিধায়ক বলেছেন- রাহুলকে তার ডিএনএ পরীক্ষা করানো উচিত||তেলেঙ্গানায় ভেঙে পড়েছে 8 বছর ধরে নির্মিত সেতু, প্রবল বাতাসের কারণে দুটি কংক্রিটের গার্ডার ভেঙে পড়েছে||ইংলিশ চ্যানেল পার হতে গিয়ে শিশুসহ পাঁচজনের মৃত্যু, সৈকতে পাওয়া গেছে মৃতদেহ ||এখন এই দলের খেলা নষ্ট করতে পারে RCB, প্লে-অফে সংকট হতে পারে||বিশ্ববিদ্যালয় আইন সংশোধনী বিল স্বাক্ষর না করায় রাজ্যপালের বক্তব্য শুনতে নোটিশ জারি করল সুপ্রিম কোর্ট

গার্ডেনরিচের ঘটনার পর বেআইনি নির্মাণে কড়া কলকাতা হাইকোর্ট

Facebook
Twitter
WhatsApp
Telegram
গার্ডেনরিচ

কলকাতা: গার্ডেনরিচের ঘটনার পর বেআইনি নির্মাণে কড়া কলকাতা হাইকোর্ট। কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অমৃতা সিনহা বহু বেআইনি নির্মাণ ভেঙে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। এবার তিনি একটি নারকেল বাগানে একটি বেআইনি নির্মাণ ভেঙে দেওয়ার নির্দেশ দেন। শনিবার থেকে কাজ করতে হবে বলেও জানান তিনি। বাড়ি ভাঙার মামলায় স্থগিতাদেশ চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হওয়া ব্যক্তিকে বিচারপতি সিনহা প্রশ্ন করেন, এই নির্মাণ যদি কোনো দিন আপনার ওপর ভেঙে পড়ে?

প্রসঙ্গত, নারকেল ডাঙ্গে থানা এলাকায় 3D/H/7MN চ্যাটার্জি সারনিতে একটি ছয় তলা বিল্ডিং তৈরি করা হয়েছিল। কোনো অনুমতি ছাড়াই পুরো ভবনটি নির্মাণ করা হয়েছে বলে জানা গেছে। সেই নির্মাণে বসতিও ছিল। এরপর বিষয়টি আদালতে যায়। বিচারপতি সিনহা অবৈধ ভবন ভাঙার নির্দেশ দেন। কিন্তু তারপরও ভবনটি ভাঙা হয়নি বলে জানা গেছে। এরপর শুক্রবার ডাকা হয় নারকেল ডাঙ্গা থানার ওসিকে। বিচারক তাকে ব্যক্তিগতভাবে আদালতে আসার নির্দেশ দেন। ওসিও অংশ নেন।

রাজ্যের পক্ষে হাজির হয়ে অ্যাডভোকেট অমিতেশ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, “গতকাল বলা হয়েছিল যে পৌরসভা বা পুলিশ সহযোগিতা করছে না।” এই বাড়িটা একেবারে খালি। গত ৪ জানুয়ারি ভাঙচুরের আদেশ দেওয়া হয়। সরানোর কোনো নির্দেশনা ছিল না। গত ৬ জানুয়ারি পুরসভাও বাড়ি ভাঙার কাজ শুরু করে। ওই বাড়িতে কেউ থাকে না। পৌরসভা সম্পূর্ণ মিথ্যা বলেছে।”এদিকে ওই বাড়ির প্রথম তলার এক বাসিন্দা আদালতকে বলেন, ‘নিয়ম অনুযায়ী নিচতলা নির্মাণ করা হয়েছে। অতএব, আদেশ স্থগিত করুন।” পাল্টা বিচারক জিজ্ঞেস করলেন, বাড়ি ভেঙ্গে গেলে কে বাঁচাবে? মিউনিসিপ্যাল ​​কর্পোরেশনের প্রকৌশলী একটি রিপোর্ট দিয়েছেন এবং বলেছেন যে আগামীকাল আবার এটি ভেঙে ফেলা হবে। সেখানে পুলিশ মোতায়েন থাকবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর

ট্রেন্ডিং খবর