প্রভাত বাংলা

site logo
Breaking News
||EURO 2024 : তুরস্ককে হারিয়ে রাউন্ড অফ 16-এ যোগ্যতা অর্জন করেছে পর্তুগাল ||রেকর্ড গড়লেন হার্দিক পান্ডিয়া , এই কীর্তি করতে পারেননি কোনও ভারতীয় অলরাউন্ডার||প্রদীপ সিং খারোলা কে? NEET, UGC-NET পরীক্ষা বিতর্কের মধ্যে এনটিএর কমান্ড কে পেলেন?||NEET Scam : NEET-UG পেপার ফাঁসের তদন্ত সিবিআই-এর হাতে তুলে দিল শিক্ষা মন্ত্রক||EURO 2024 : চেক প্রজাতন্ত্রের সাথে 1-1 ড্র করে প্রথম পয়েন্ট অর্জন করেছে জর্জিয়া ||NEET-PG পরীক্ষা স্থগিত, পরীক্ষার এক দিন আগে নির্দেশ জারি||NEET Scam :NEET অনিয়ম নিয়ে বড় অ্যাকশন, পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল সুবোধ কুমারকে দোষারোপ, NTA-এর নতুন ডিজি হলেন প্রদীপ কুমার|| বিশ্বকাপে স্বর্ণপদক জিতেছে ভারতীয় মহিলা কম্পাউন্ড তীরন্দাজ দল, র‌্যাঙ্কিং-এও নম্বর-1 ||দিল্লির জল সঙ্কট, এলজি বলেছেন – AAP-এর অভিযোগ এবং পাল্টা অভিযোগের একই গল্প||ভারতীহরিকে প্রোটেম স্পিকার করার বিরুদ্ধে কংগ্রেসের বিরোধিতা, রিজিজু বললেন- মিথ্যার একটা সীমা থাকে

সেনাবাহিনীর ইউনিফর্ম, হাতে বন্দুক, 20 মিনিটের গুলিবর্ষণ এবং… নিজের চোখে যা দেখেছেন তা বর্ণনা করেছেন

Facebook
Twitter
WhatsApp
Telegram
সেনাবাহিনী

রিয়াসি সন্ত্রাসী হামলায় বেঁচে যাওয়াদের বক্তব্য: শিব খোদা মন্দির থেকে ফিরছিলেন, হঠাৎ সেনাবাহিনীর ইউনিফর্ম পরা 4 থেকে 5 জন লোক বাসের সামনে আসে। তিনি কালো টুপি পরেছিলেন। মুখগুলো লাল রঙের মাফলার দিয়ে ঢাকা ছিল। সামনে আসতেই তারা গুলি চালাতে থাকে। প্রায় 20 মিনিট ধরে তারা অবিরাম গুলি চালাতে থাকে। প্রথমে গুলিবিদ্ধ হন চালক। চালক আহত হওয়ায় বাসটি ভারসাম্য হারিয়ে দেড়শ ফুট গভীর খাদে পড়ে যায়।

মহিলা ও শিশুরা চিৎকার করলেও বাসটি গড়িয়ে পড়তে থাকে। গুলির শব্দ শুনে লোকজনও ছুটে আসে, কিন্তু ততক্ষণে সন্ত্রাসীরা গুলি চালাতে শুরু করে জঙ্গলে ঢুকে পড়ে। একটা জায়গায় বাস থামলো। মানুষ ও পুলিশ মিলে উদ্ধার অভিযান শুরু করলেও বহু মানুষ গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। ভাগ্য ভালো যে বাসে বিস্ফোরণ ঘটেনি, না হলে সবাই মারা যেত। এই অগ্নিপরীক্ষার কথা বর্ণনা করেছেন উত্তর প্রদেশের বাসিন্দা সন্তোষ কুমার, যিনি বুলেটে আহত হয়েছিলেন।

খাদে পড়ে বাসে গুলি চালাতে থাকে
সন্তোষ জানান, তিনি ড্রাইভারের পাশে বসেছিলেন। তিনি সন্ত্রাসীদের চোখ দিয়ে দেখলেও মুখ ঢাকা থাকায় শনাক্ত করতে পারেননি। তারা চালককে লক্ষ্য করে গুলি করে। সিটের নিচে ঢুকেছিলেন। সবাই সিটের নিচে ঢুকেছে। বাসটি খাদে পড়ে গেলেও সন্ত্রাসীরা গুলি চালাতে থাকে। হঠাৎ গুলি থেমে গেলে মানুষ বাস থেকে বেরিয়ে পাথরের ওপর পড়ে। আহত হয়েও শিশুদের দেখাশোনা করেছেন। ততক্ষণে লোকজন ও পুলিশ এসে পৌঁছেছে।

সবাইকে বাস থেকে নামিয়ে রাস্তায় নিয়ে যায়। তাদের অ্যাম্বুলেন্সের মাধ্যমে জেলা হাসপাতাল রেসিতে নিয়ে যাওয়া হয়, যেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পরে, সবাইকে কাটরার নারায়ণ হাসপাতাল এবং জম্মুর সরকারি মেডিকেল কলেজে রেফার করা হয়। সেনা বাহিনীও ঘটনাস্থলে পৌঁছে এলাকায় তল্লাশি অভিযান চালায়। নিরাপত্তা সংস্থাগুলি বলছে যে সন্ত্রাসী হামলাটি পূর্বপরিকল্পিত ছিল, কারণ একটি সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে একটি জিপ বাসের পিছনে যাচ্ছে।

সন্ত্রাসী হামলার তদন্তভার এনআইএ-র হাতে
জানিয়ে দেওয়া যাক, রিয়াসিতে ভক্তদের ভরা বাসে সন্ত্রাসী হামলার তদন্তভার এনআইএ-র হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। নিরাপত্তা বাহিনী এলাকায় অবস্থান নিয়েছে। বাসে যাত্রীরা উত্তরপ্রদেশ, দিল্লি ও রাজস্থানের বাসিন্দা। রিয়াসির এসএসপি মোহিতা শর্মা জানিয়েছেন, সন্ত্রাসী হামলায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহত ৭ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। মৃত দুজনই বলরামপুরের বাসিন্দা। তাদের নাম রুবি ও অনুরাগ ভার্মা। আহতদের মধ্যে নয়জন আলিগড়ের গোন্ডা ব্লকের বাসিন্দা। 6 জন বলরামপুরের বাসিন্দা। 2 জন নয়ডার বাসিন্দা, 2 জন গোরখপুরের, 2 জন বারাণসীর, 3 জন মিরাটের বাসিন্দা। একজন বৈরানপুরের বাসিন্দা।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর

ট্রেন্ডিং খবর