প্রভাত বাংলা

site logo
Breaking News
||ইংলিশ চ্যানেল পার হতে গিয়ে শিশুসহ পাঁচজনের মৃত্যু, সৈকতে পাওয়া গেছে মৃতদেহ ||এখন এই দলের খেলা নষ্ট করতে পারে RCB, প্লে-অফে সংকট হতে পারে||বিশ্ববিদ্যালয় আইন সংশোধনী বিল স্বাক্ষর না করায় রাজ্যপালের বক্তব্য শুনতে নোটিশ জারি করল সুপ্রিম কোর্ট||Horoscope Tomorrow : মেষ, কর্কট, তুলা রাশির শত্রুদের থেকে সাবধান, জেনে নিন সব রাশির রাশিফল||Airtel নিয়ে এল শক্তিশালী প্ল্যান, 184টি দেশে কাজ করবে আনলিমিটেড ইন্টারনেট, দীর্ঘ আলোচনা হবে||T20 World Cup 2024 স্কোয়াডে দিনেশ কার্তিককে জায়গা দেওয়া কতটা সঠিক, জেনে নিন পরিসংখ্যান||‘এর জন্য আপনাকে মূল্য দিতে হবে…’, প্রধানমন্ত্রী মোদীর বক্তব্যে বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়||Shahrukh khan return as don: সুহানা খানের কিং-এ ডন চরিত্রে অভিনয় করবেন শাহরুখ খান||14 তম তালিকা প্রকাশ করেছে বিজেপি , লাদাখ থেকে টিকিট পাননি জামিয়াং সেরিং নামগিয়াল||গান্ধী পরিবারের মতো নিজের দলকে ভোট দিতে পারবে না উদ্ধব-কেজরিওয়ালের পরিবার

প্রাক্তন প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগ

Facebook
Twitter
WhatsApp
Telegram
প্রধান শিক্ষক

কানাইপুর নপারা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগে অভিযুক্ত শিক্ষককে গণপ্রহার দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিলো এলাকার বাসিন্দারা।এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

কানাইপুর নপারা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক সুব্রত দাস(৬৫) এলাকার পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে বাড়িতে পড়াতে আসতো।আর দীর্ঘদিন ধরেই এলাকার বাসিন্দাদের কাছে খবর ছড়াচ্ছিল যে ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন উপহার দিয়ে ছাত্রীকে ধর্ষণ করতো ওই শিক্ষক।কিন্তু ভয়ে ওই ছাত্রী কাউকে কিছু জানতে পারেনি।এরপর দীর্ঘ দুমাস ধরে ওই ছাত্রীর পিরিয়ড না হওয়ায় বাড়ির লোকরা এলাকার মহিলাদের সেই কথা জানান।এরপর আজ অভিযুক্ত শিক্ষক সুব্রত দাস ওই ছাত্রীকে পড়াতে এসে আবার ওই ছাত্রীর সাথে নোংরামো শুরু করে।সেই সময় এলাকার মহিলারা হাতে নাতে ধরে ফেলে ওই শিক্ষককে।এরপর এলাকার বাসিন্দারা বেধড়ক মারধর করে ওই শিক্ষকের পুলিশের হাতে তুলে দেন।অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করেছে উত্তরপাড়া থানার কানাইপুর ফাঁড়ির পুলিশ।

এলাকার বাসিন্দা এক মহিলা বলেন,এটা কেমন শিক্ষক,যে ভরসা করে যার কাছে বাড়ির মেয়েদের পড়তে পাঠাবো সেই শিক্ষক যদি এমন করে তাহলে ভরসা আর কোথায়।শিক্ষকের কাছেই এখন ছাত্রীরা সুরক্ষিত নয়।এই ছাত্রীর পরিবার গরীব তাই ছাত্রীকে প্রায় সোনার জিনিস থেকে শুরু করে টাকা সব উপহার দিত ওই শিক্ষক।আর সেই উপহার দিয়ে প্রায় ধর্ষণ করতো ওই পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রীকে।এমন শিক্ষকের সমাজে থাকার কোনো অধিকার নেই।এই শিক্ষকের কঠিন শাস্তির দরকার।অভিযুক্ত শিক্ষকের শাস্তির দাবিতে কানাইপুর ফাঁড়িতে বিক্ষোভও দেখায় এলাকার মহিলারা।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর

ট্রেন্ডিং খবর