প্রভাত বাংলা

site logo
শুভেন্দু

সাক্ষাৎকার নিয়ে মুখ খুললেন শুভেন্দু বললেন- ‘এর মধ্যে অন্য কিছু নেই’

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ প্রসঙ্গে শুভেন্দু অধিকারী বলেন,”আমি BJP করি। আমাদের দল পরিবার। আমার সঙ্গে দলীয় বিধায়করাও ছিলেন। আমি তাঁর এই পদক্ষেপ উদারতা হিসেবে গ্রহণ করব, দুর্বলতা হিসেবে নয়। আমরা সৌজন্য বজায় রাখব। রাজ্যের উন্নয়নের জন্য যখনই প্রয়োজন পড়বে উপস্থিত থাকব। তবে সেক্ষেত্রে BJP, তৃণমূল বিধায়ক নয়, সকলকে বিধায়ক হিসেবে দেখতে হবে।” কেন্দ্রের টাকা না দেওয়া প্রসঙ্গে এবং সেই নিয়ে বিরোধীদের অবস্থান প্রসঙ্গে শুভেন্দু অধিকারী বলেন, “আমরা শুধু চেয়েছি যে কেন্দ্রীয় প্রকল্পগুলিকে সেই নামই দেওয়া হোক এবং কোনও দুর্নীতি যাতে না হয়।”

রাজ্য রাজনীতিতে বড় চমক! বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) ঘরে গিয়ে তাঁর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এরপর থেকেই রাজ্য রাজনীতি তোলপাড়। এবার এই সৌজন্য সাক্ষাৎকার নিয়ে মুখ খুললেন শুভেন্দু।

ঠিক কী বলেছেন তিনি?
শুভেন্দু অধিকারী বলেন, “২০২১ সালে নির্বাচনের পর যদি লিডার অফ দ্য হাউস সকল বিধায়ককে নিয়ে যাত্রা শুরু করতেন তাহলে এই বিষয়টি হত না। তবে তিনি যে সৌজন্য দেখিয়েছেন তা আমরা কোনওভাবেই দুর্বলতা হিসেবে দেখব না। আমরা পুরো বিষয়টিকে স্বাগত জানাচ্ছি। এই ধরনের ফ্লোর কোঅর্ডিনেশন থাকার দরকার রয়েছে। তিনি যে সদিচ্ছা দেখিয়েছেন তা আশাকরি শাসক দলের অন্যান্য বিধায়করাও বজায় রাখবেন। এর মধ্যে অন্য কিছু নেই।” এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কিছু কিছু মন্তব্যে আপত্তি তুলেছেন শুভেন্দু অধিকারী। তিনি বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কৃষ্ণ কল্যাণীকে BJP বলছেন।বিশ্বজিৎ দাসকে BJP বলছেন। তা বন্ধ করতে হবে। পাবলিক অ্যাকাউন্স কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে বিজেপির বিধায়কদের নির্বাচিত করতে হবে।” রাজ্যপালের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আসন বন্টন প্রসঙ্গেও এদিন সরব হন শুভেন্দু। তিনি বলেন, “সুকান্ত মজুমদারও সাংসদ। সেক্ষেত্রে কেন তাঁর আসন পেছনে হবে।”

Read More : দালালচক্র নিয়ে বিধানসভায় কড়া বার্তা দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

বকেয়া DA নিয়ে রাজ্যকে তোপ শুভেন্দু অধিকারীর…
এদিন বিধানসভার বাইরে বেরিয়ে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা বলেন, “DA মামলা বহু চর্চিত এবং কিছুদিন আগেই কয়েকটি সংগঠনের প্রতিবাদে যেভাবে বাধা দেওয়া হয় আমরা তার নিন্দা করি। DA সরকারি কর্মীদের অধিকার। আগামী সপ্তাহে সুপ্রিম কোর্টে এই মামলা উঠতে পারে। আমরা চাই অতি শীঘ্রই যাতে বকেয়া DA মিটিয়ে দেওয়া হয়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *