প্রভাত বাংলা

site logo
শুভেন্দু অধিকারী

‘ এদেরকে কী করে হারাতে হয় আমি জানি’ বার্তা শুভেন্দু অধিকারীর

দলীয় কর্মীদের উদ্দেশে বার্তা দিলেন শুভেন্দু: দলীয় সভা থেকে শুভেন্দু অধিকারী বলেন, “বুথগুলো রেডি করুন। ৫০টা লোক দরকার আমার। ৩০ জন যুবক ও ২০ জন মহিলা প্রয়োজন। কে কী হা্রাতে হয় শুভেন্দু অধিকারী জানে। ঠিক যেভাবে রাস্তার ওপারে কোম্পানির মালিককে হারিয়েছি।”

পঞ্চায়েত ভোটের (Panchayat Poll) আগে দলীয় কর্মীদের উদ্দেশে বার্তা দিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা। এদিন তিনি বলেন, “কী করে এদেরকে হারাতে হয় আমি জানি। আমি যেভাবে কোম্পানির মালিককে হারিয়েছি, আপনারাও পারবেন। প্রতি বুথে আমার ৫০টা লোক দরকার। ৩০ জন যুবক ও ২০ জন মহিলা।’’ “মহিলারা হবেন মা ভবানী আর পুরুষরা হবেন স্বামী বিবেকানন্দর শিষ্য।’’ পঞ্চায়েত ভোটের আগে দলীয় কর্মীদের উদ্দেশে বার্তা বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর (Suvendu Adhikari)।

শুভেন্দুকে পাল্টা তোপ কুণালের: শুভেন্দু অধিকারীকে পাল্টা তোপ দেন কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh)। এদিন তিনি বলেন, “নন্দীগ্রাম কেন, পূর্ব মেদিনীপুরজুড়ে শুভেন্দু অধিকারীর ধস চলছে। লোক চলে যাচ্ছে। আদি বিজেপিরা ওঁকে মানে না। পরিষ্কার বলছি, এঁদের বিরুদ্ধে লড়াই ছিল। সিবিআই-ইডি থেকে বাঁচতেই আমাদের উপর ছরি ঘোরাচ্ছে। ওঁকে কেউ মানছে না। হীনমন্যতায় ভুগছে। গতকাল খেজুরিতে ৩০০-৪০০ লোকের সভা করেছে। খেজুরিতে আমাদের ১০ হাজার লোকের সভা হয়েছে। সবাই দেখেছে। বুথে লোক চাই। কর্মী তো ওদের নেই। লোক দরকারের কথা বললে কুমোরটুলিতে অর্ডার দিক।”

Read More : পুলিশকে হুঁশিয়ারি ভাঙড়ের বিধায়কের

সামনেই পঞ্চায়েত ভোট। তার আগে ক্রমেই চড়ছে বাগযুদ্ধের পারদ। হুঙ্কার – পাল্টা হুঙ্কার। পঞ্চায়েত ভোটের ( Panchayet Poll ) আগে পুলিশের বিরুদ্ধে সরব নওশাদ সিদ্দিকি (Naoshad Siddique)। ভাঙড়ের কর্মিসভা থেকে পুলিশকে হুঁশিয়ারি নওশাদের । নাম না করে ভাঙড় থানার ওসিকে হুঁশিয়ারি দিলেন বিধায়ক। কার্যত হুঁশিয়ারির সুরেই তিনি বলেন, ‘ট্রান্সফার নিয়ে যেখানেই চলে যান না কেন, একদিন ভাঙড়েই ফিরিয়ে আনব, তখন ট্রাফিক পুলিশের কাজ করতে হবে, রাস্তায় দাঁড়িয়ে সারাদিন গাড়ি লক্ষ্য করে হাত দেখাবেন’ ভাঙড়ে দলীয় কর্মিসভা থেকে হুঁশিয়ারি আইএসএফ বিধায়ক নওশাদ সিদ্দিকির।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *