প্রভাত বাংলা

site logo
ডিএ

ডিএ-র প্রতিবাদে গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিদের মুক্তির দাবিতে শোরগোল আদালত চত্বরে

বুধবার মহার্ঘ ভাতা (ডিএ) দাবিতে বিধানসভা চত্বরে বিক্ষোভ করার পরে 48 জন রাজ্য সরকারি কর্মচারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার তাদের মুক্তির দাবিতে ব্যাঙ্কশাল আদালত চত্বরে তোলপাড় হয়। রাজ্য সরকারের অনেক বেতনভোগী ও পেনশনভোগী আটকদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে আদালত চত্বরে বিক্ষোভ করেছেন। বুধবার গ্রেফতারকৃত বিক্ষোভকারীদের পুলিশ ভ্যানে করে আদালত চত্বরে আনা হলে বাকি বিক্ষোভকারীরা হাততালি দিতে থাকে। এছাড়া গ্রেফতারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে স্লোগান দেওয়া হয়।

এ মামলায় শুনানি শেষে আদালত রায় স্থগিত করেন। বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য আদালতে গ্রেফতারকৃত আন্দোলনকারীদের পক্ষে আবেদন করেন। তিনি বলেন, “শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ চলছিল। তারা গুন্ডা নয়। এটা কোনো হেফাজতের মামলা নয়। তাদের হেফাজতে রাখার কোনো প্রয়োজন নেই। হাইকোর্টে যারা কাজ করেন তাদের অনেককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার হাইকোর্টে অচলাবস্থা রয়েছে। সবাই এখানে আটকে আছে তাই কোনো কাজ হচ্ছে না।”

প্রসঙ্গত, কেন্দ্রের সমান মহার্ঘ ভাতা কবে পাওয়া যাবে এই দাবি নিয়ে বুধবার রাজ্য সরকারের বেতনভোগী ও পেনশনপ্রাপ্ত কর্মচারীদের ৩০টি সংগঠন রাস্তায় নেমেছিল। বিক্ষোভকারীরা সমাবেশের প্রধান ফটকের কাছে প্রিয় ভাতা তোলার পরিকল্পনা করেছিল। আকাশবাণী ভবন থেকে বিধানসভার দিকে মিছিল করতে গেলে পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ হয়। বিপুল সংখ্যক বিক্ষোভকারীদের সামাল দিতে পুলিশকে হিমশিম খেতে হয়েছে। পুলিশ বিক্ষোভকারীদের থামানোর চেষ্টা করে। ঘটনাস্থলে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ হয়। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে বিক্ষোভকারীদের রক্তও ঝরেছে। বিক্ষোভকারীদের থামাতে পুলিশ লাঠিপেটা ও থাপ্পড় মারে বলে অভিযোগ। পুলিশের বিরুদ্ধে কিছু বিক্ষোভকারীদের মুখে ঘুষি মেরে ভেঙে দেওয়ার অভিযোগও রয়েছে।

বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, পুলিশ সরকারি কর্মচারীদের বাধা দিতে তাদের ওপর বলপ্রয়োগ করেছে। পুরুষ বা মহিলা নির্বিশেষে বিক্ষোভকারীদের শার্টের কলার ধরে টেনে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগও রয়েছে পুলিশের বিরুদ্ধে। ঘটনায় আহত হয়েছেন রাজ্য সরকারের বেশ কয়েকজন কর্মী।

আন্দোলনকারীদের বক্তব্য অনুযায়ী, পুলিশ নেতৃত্বসহ মোট 48 জন সরকারি কর্মচারীকে বিধানসভা চত্বর থেকে গ্রেপ্তার করেছে। তাদের মধ্যে একজন সরকারি কর্মচারীসহ মোট 17 জন নারী রয়েছেন যারা নতুন মা হয়েছেন। গ্রেফতারকৃত সরকারি কর্মীদের সারারাত লালবাজারে পুলিশি হেফাজতে রাখা হয়েছে। বৃহস্পতিবার তাদের ব্যাঙ্কশাল আদালতে পেশ করে পুলিশ।

Read More : প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক, দিল্লি যাচ্ছেন মমতা, বললেন মুখ্যমন্ত্রী হয়ে যাচ্ছি না!

সরকারি কর্মীরা জানান, 35 শতাংশ মহার্ঘ ভাতার দাবিতে তারা রাজপথে ছিলেন। কিন্তু তাদের কথা না শুনে পুলিশের হাতে নির্যাতন করা হচ্ছে। তাদের অভিযোগ, পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারী এমনকি একজন অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকও রক্তাক্ত হয়েছেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *