প্রভাত বাংলা

site logo
অনুব্রত মণ্ডল

অনুব্রত মণ্ডল নয়, কোটি টাকার লটারি জিতেছিলেন বড় শিমুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা শেখ নুর আলি?

লটারির রহস্য ঘনিয়ে আসছে। অনুব্রত মণ্ডল নয়, কোটি টাকার লটারি জিতেছেন বড় শিমুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা শেখ নূর আলী? এই প্রশ্নের উত্তর জানতে বৃহস্পতিবার তাঁকে নোটিশ পাঠিয়েছে সিবিআই। এ ঘটনায় বিস্ফোরক দাবি করেছেন শেখ নূর আলীর বাবা কাটাই শেখ।

“লটারি জিতে এক সপ্তাহ ঘরে ঢুকতে পারিনি”
কোতাই শেখ এদিন বলেন, “লটারি জেতার পর বাড়িতে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের উপদ্রব বাড়ে। তাদের হাতে লটারি তুলে দেওয়ার ভয়ভীতি। ঘটনার জেরে প্রায় সাতদিন বাড়ি থেকে বের হতে হয়। লটারি কেড়ে নেওয়া হয়। আমার থেকে.” এদিকে এ ঘটনায় শেখ নূর আলী কোনো মন্তব্য করতে চাননি। অস্থায়ী সিবিআই ক্যাম্পে ঢোকার আগে তিনি বলেন, “আমি প্রথমে ভিতরে গিয়ে তদন্তকারীদের সঙ্গে কথা বলব। তারপর মন্তব্য করব।”

83 লাখ টাকায় লটারির টিকিট কিনলেন অনুব্রত মণ্ডল?
অনুব্রত মণ্ডলের লটারি জেতার বিষয়ে, ‘গাঙ্গুলি লটারি’-এর মালিক বাপি গঙ্গুপাধ্যায় বৃহস্পতিবার মিডিয়ার মুখোমুখি হয়ে দাবি করেছেন, “টিকিটটি রাহুল লটারি থেকে এসেছে। এটি কালাম শেখ বিক্রি করেছিলেন। নূর আলি নামে এক ব্যক্তি সেখান থেকে এটি পেয়েছেন। অনুব্রত মন্ডল সেখান থেকে টিকিট কিনেছিলেন।অনুব্রত মণ্ডল 83 লাখে কিনেছিলেন। মাঝে মাঝে আমাকে বিশ্বজ্যোতি ব্যানার্জী ওরফে মুন বহিরিগ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়। তারা লটারির কিছুই বুঝতে পারেনি। তাই তারা আমাকে টিকিট চেক করতে নিয়ে যায়। বুঝলাম, আমার কিছু করার নেই।” লটারির মাধ্যমে গরু চোরাচালান মামলার কালো টাকা সাদা করা হচ্ছে কি না, তা পর্যবেক্ষণ করছিলেন গোয়েন্দারা। তার এই মন্তব্য চাঞ্চল্যকর হয়ে উঠেছে।

Read More : প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক, দিল্লি যাচ্ছেন মমতা, বললেন মুখ্যমন্ত্রী হয়ে যাচ্ছি না!

সব দাবি তুলেছে তৃণমূল…
এদিকে, লটারি নিয়ে কাটির তোলা অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন বীরভূম জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সহ-সভাপতি মলয় মুখোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “এগুলো আজেবাজে কথা। এতক্ষণ কি তিনি ঘুমিয়ে ছিলেন! যে লটারি থেকে এত টাকা ছিনতাই হয়েছে, তার অন্তত থানায় অভিযোগ জানানো উচিত! এইসব আজেবাজে কথা বলে তৃণমূলকে বদনাম করার চেষ্টা করছে। “

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *