প্রভাত বাংলা

site logo
ইমরান খান

প্রধানমন্ত্রী মোদির কাছ থেকে শিখুন… শাহবাজ শরিফকে আক্রমণ করলেন ইমরান খান

পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) প্রধান ও প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আবারও তাঁর উত্তরসূরি শাহবাজ শরিফকে আক্রমণ করেছেন। লাহোরে একটি অনুষ্ঠানে ইমরান শাহবাজকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে তুলনা করেন। ইমরান বলেন, এমন কোনো প্রধানমন্ত্রী খুব কমই এসেছেন যিনি বিদেশে কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি জমা করেছেন। ইমরানকে অতীতেও শাহবাজ এবং তার সরকারের বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক অবস্থান নিতে দেখা গেছে। তার নতুন আক্রমণে তিনি শাহবাজকে একভাবে সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন।

শাহবাজকে প্রশ্ন করা হয়
অনুষ্ঠানে ইমরানের বক্তব্যের একটি ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে। এতে তিনি শাহবাজের বিদেশে থাকা সম্পত্তির কথা বলছেন। এতে ইমরানকে বলতে শোনা যায়, ‘আমাকে এমন কোনো একটি দেশের প্রধানমন্ত্রী বা নেতার নাম বলুন যিনি বিদেশে কোটি কোটি কোটি টাকার সম্পদ জমিয়েছেন। এমনকি আমাদের প্রতিবেশী দেশ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিদেশে কোনো সম্পত্তি থাকলে বলবেন?’

ইমরান লাহোরে আইনজীবী সম্মেলনে বক্তব্য রাখছিলেন, যেখানে তিনি এ কথা বলেন। এই প্রথম নয় যে ইমরান এভাবে প্রধানমন্ত্রী মোদী বা ভারতের প্রশংসা করেছেন। এই বছরের এপ্রিলের শুরুতে, ইমরান খোলাখুলিভাবে প্রধানমন্ত্রী মোদী এবং তার বিদেশ নীতির প্রশংসা করেছিলেন।

আগে প্রশংসিত হয়েছিল
রাশিয়ার কাছ থেকে ছাড়ে তেল নেওয়ার জন্য ভারতের প্রশংসা করেছেন ইমরান। তিনি বলেছিলেন যে তার সরকারও এই দিকে কাজ করছে যেখানে দেশের একটি স্বাধীন পররাষ্ট্রনীতি থাকা উচিত। শাহবাজ সরকারের সমালোচনা করে ইমরান বলেন, অর্থনীতির ক্ষেত্রে সরকার মাথা কাটা মুরগির মতো ঘুরে বেড়াচ্ছে। ইমরানের কথায়, ‘কোয়াডের অংশ হওয়া সত্ত্বেও ভারত যুক্তরাষ্ট্রের চাপ নিয়ে রাশিয়ার কাছ থেকে ছাড়ে তেল কিনে জনগণকে স্বস্তি এনে দিয়েছে।’

Read More : রাশিয়ান এয়ারলাইন্স 18-65 বছর বয়সী পুরুষদের টিকিট বিক্রি না করার নির্দেশ দিয়েছে : রিপোর্ট

এছাড়া ভারতে পেট্রোল ও ডিজেলের দাম কমার খবরও রিটুইট করেছেন ইমরান। এপ্রিলেই ইমরান ভারতীয়দের ‘খুদ্দর’ অর্থাৎ আত্মসম্মানবোধসম্পন্ন মানুষ বলে সম্বোধন করেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, কোনো পরাশক্তি ভারতের ওপর শর্ত চাপিয়ে দিতে পারবে না। ইমরান বলেন, ভারত ও পাকিস্তান একসঙ্গে স্বাধীনতা পেয়েছিল। কিন্তু বিশ্ব সবসময় পাকিস্তানকে টিস্যু পেপার হিসেবে ব্যবহার করেছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published.