প্রভাত বাংলা

site logo
ডিএ

ডিএ মামলা: কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সরকার সুপ্রিম কোর্টে যেতে পারে রাজ্য

ডিএ বা মহার্ঘ ভাতা নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে যেতে পারে রাজ্য সরকার। সূত্রের খবর, এই মামলায় সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার প্রস্তুতি শুরু করেছে রাজ্য।বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন এবং বিচারপতি রবীন্দ্রনাথ সামন্তের সমন্বয়ে গঠিত কলকাতা হাইকোর্টের একটি ডিভিশন বেঞ্চ বৃহস্পতিবার মহার্ঘ ভাতা মামলা পর্যালোচনা করার জন্য রাজ্যের আবেদন খারিজ করে দিয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষের আবেদন খারিজ করে 20 মে এর রায় বহাল রাখার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। ডিভিশন বেঞ্চের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে যেতে পারে রাজ্য সরকার।

প্রকৃতপক্ষে, ডিএ নিয়ে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের লড়াই দীর্ঘদিনের। ডিএ মামলায়, 20 মে, কলকাতা হাইকোর্টের একটি ডিভিশন বেঞ্চ নির্দেশ দেয় যে রাজ্যকে তিন মাসের মধ্যে বকেয়া মহার্ঘ ভাতা দিতে হবে। সেই সময়সীমা শেষ হয়েছে গত 19 আগস্ট। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ডিএ বকেয়া পরিশোধ না করায় রাজ্যের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আদালত অবমাননার মামলা দায়ের করা হয়। বৃহস্পতিবার মামলাটি বিচারাধীন রাখেন হাইকোর্ট। আগামী ৭ নভেম্বর আদালত অবমাননার মামলার শুনানি হবে।

মূল মামলার রায় পুনর্বিবেচনার আবেদনের ওপর রায় দিতে গিয়ে বৃহস্পতিবার আদালত বলেন, পুনর্বিবেচনার আবেদন গ্রহণ করা হচ্ছে না। দীর্ঘ শুনানির পর কী ভুল তা খুঁজে বের করা আদালতের দায়িত্ব নয়। আদালত বলেছে, ‘বিস্তারিত তদন্ত’ বা রাষ্ট্র যেমন বলে ‘স্ক্রুটিনির’ আর প্রয়োজন নেই। রাজ্যের আবেদনের কোনো গ্রহণযোগ্যতা (মেধা) নেই।

Read More : ডিএ মামলার রায় পুনর্বিবেচনার জন্য রাজ্যের আবেদন খারিজ করে দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট

প্রসঙ্গত, 20 মে ডিভিশন বেঞ্চের আদেশ অনুসারে, রাজ্যের সরকারি কর্মচারীদের 31 শতাংশ হারে ডিএ দিতে হবে। কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীরা 34 শতাংশ হারে ডিএ পান।

Leave a Comment

Your email address will not be published.