প্রভাত বাংলা

site logo

আজম খানের বিরুদ্ধে 89টি মামলা নথিভুক্ত হওয়ায় কঠোর সুপ্রিম কোর্ট, পরবর্তী শুনানি 17 তারিখে

লখনউ : এসপি বিধায়ক এবং প্রাক্তন মন্ত্রী আজম খান দীর্ঘদিন ধরে জামিনের জন্য অপেক্ষা করছেন, তবে কোনও না কোনও কারণে তিনি দেশে ফিরতে পারছেন না। এখন শত্রু সম্পত্তি মামলায় সীতাপুর জেলে বন্দী এসপি নেতা জামিন পেলে আজ সুপ্রিম কোর্টে এই বিষয়ে শুনানি হল। আজম খানের আবেদনে কড়া মন্তব্য করেছে সুপ্রিম কোর্ট।

পরবর্তী শুনানি 17 মে
শুনানিতে বিচারক বলেন, ‘একটি মামলায় জামিন হলে নতুন করে মামলা করা হয়। এমন কেন? একের পর এক 89টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর জবাবে ইউপি সরকারের কৌঁসুলি বলেন, ‘এটা ভুল ধারণা। আমরা এ বিষয়ে হলফনামা দাখিল করব। এখন এই মামলার শুনানি 17 মে পর্যন্ত মুলতবি করা হয়েছে।

1 লাখ টাকা জামিন ও দুটি জামিনে জামিন
আসলে আজম খানের বিরুদ্ধে শত্রু সম্পত্তি মামলায় রায় দিয়েছে বিচারপতি রাহুল চতুর্বেদীর একক বেঞ্চ। আদালত এক লাখ টাকা জামিন ও দুটি জামিনে জামিন দিয়েছেন। তবে সম্প্রতি আরেকটি মামলায় এফআইআর নথিভুক্ত হওয়ায় আজম খান সীতাপুর জেল থেকে মুক্তি পেতে পারবেন না।

জামিনের পরও কেন মুক্তি পাননি আজম খান?
আসলে, বিজেপি নেতা আকাশ সাক্সেনার অভিযোগ আমলে নিয়ে আজম খানের বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। রামপুর পাবলিক স্কুলের ভবনের শংসাপত্র জাল করে স্বীকৃতি নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে এসপি নেতার বিরুদ্ধে। প্রতিবেদনে বলা হয়, আগামী 19 মে রামপুর আদালতে এই মামলার শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে। এর আগে শত্রু সম্পত্তি মামলায় আজম খানকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।

Read More :

আজম খানের বিরুদ্ধে মোট 88টি মামলা দায়ের করা হয়েছে
এসপি নেতা আজম খানের বিরুদ্ধে মোট 88টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ পর্যন্ত তিনি শত্রু সম্পত্তি মামলাসহ 87টি মামলায় জামিন পেয়েছেন। আজম খান গত 26 মাস ধরে সীতাপুর কারাগারে সাজা ভোগ করছেন। আজম খানের আইনজীবীরা তাকে মুক্তি দেওয়ার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করছেন, কিন্তু তাকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য এখনও পর্যন্ত সফল হননি।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *