প্রভাত বাংলা

site logo
শাহবাজ

শাহবাজ শরিফের অভিযোগ- পাকিস্তানে গৃহযুদ্ধ শুরু করতে চান ইমরান খান!

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফ ইমরান খানের বিরুদ্ধে দেশের জনগণকে গৃহযুদ্ধে উসকানি দেওয়ার অভিযোগ এনে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। জিও নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যাবোটাবাদে ইমরান খানের ভাষণকে ‘পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র’ বলে অভিহিত করেছেন শাহবাজ শরিফ। তিনি বলেন, পাকিস্তানের 22 কোটি মানুষ, সংবিধান ও প্রতিষ্ঠান কোনো এক অহংকারী ব্যক্তির দাস নয়। ইমরান নিয়াজী জনগণকে গোলামী করতে চায়, কিন্তু আমরা তাকে পাকিস্তানের হিটলার হতে দেব না।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইমরান খান অনেক মিথ্যা বলেছেন, এখন সত্যের মুখোমুখি হওয়ার সময় এসেছে। প্রকৃত মীরজাফর ও মীর সাদিক তারাই দেশের প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মনগড়া বিশ্বাস তৈরি করছে। জিও নিউজের খবরে বলা হয়, শাহবাজ শরীফ ইমরান খানকে বর্তমান সময়ের মীর জাফর এবং মীর সাদিক বলে বর্ণনা করেছেন, যারা পাকিস্তানকে লিবিয়া ও ইরাকের মতো বানাতে চান। তিনি বলেন, ইমরান নিয়াজি যে হাতটি তুলেছেন তাকে কেটে ফেলতে চান। অ্যাবোটাবাদে ইমরানের বক্তৃতার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শরীফ বলেন, “আজ পাকিস্তান, সংবিধান ও দেশের প্রতিষ্ঠানকে চ্যালেঞ্জ করা হয়েছে। তাই পিটিআই চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মীর জাফর ও মীর সাদিক কারা ছিলেন?
মীর সাদিক মহীশূরের শাসক টিপু সুলতানের মন্ত্রী ছিলেন। 1798-99 সালের মধ্যে চতুর্থ অ্যাংলো-মহীশূর যুদ্ধে, তিনি টিপু সুলতানের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছিলেন এবং ব্রিটিশ শাসনকে সমর্থন করেছিলেন। একই সময়ে বাংলার নবাব সিরাজ-উদ-দৌলার শাসনামলে মীরজাফর ছিলেন বেঙ্গল আর্মির কমান্ডার। তিনি পলাশীর যুদ্ধে সিরাজ-উদ-দৌলার সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছিলেন, যা ভারতে ব্রিটিশ শাসনের ভিত্তি স্থাপন করেছিল।

ইমরান শাহবাজ শরীফকে ভিক্ষুক, চাকর ও চোর বলেছেন
শাহবাজ শরিফ বলেছেন, ইমরান খান রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র করছেন না, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেন। “কোন একজনের ঔদ্ধত্য ও মিথ্যার জন্য পাকিস্তানকে বলি দেওয়া যাবে না। প্রথমে ইমরান নিয়াজি পাকিস্তানের অর্থনীতি ডুবানোর ষড়যন্ত্র করেছিলেন, এখন তিনি দেশে গৃহযুদ্ধ করতে চান। আমাদের সরকার ইমরানের পরিকল্পনা গুঁড়িয়ে দেবে।আমাদের জানিয়ে রাখি যে অ্যাবোটাবাদে পিটিআইয়ের এক সমাবেশে দেওয়া বক্তৃতায় ইমরান খান প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফকে আক্রমণ করার সময় তাকে ‘ভিক্ষুক, চাকর ও চোর’ বলে অভিহিত করেছিলেন। ইমরান খান বলেন, ‘শরীফ পরিবার যেভাবে দেশের মানুষকে বলেছে, আমি আজ পর্যন্ত এমন মিথ্যা কথা শুনিনি।’

Read More :

পাকিস্তানের বর্তমান সরকারকে ‘গুরুত্বপূর্ণ’ বলেছেন ইমরান
ইমরান খান শাহবাজ শরীফ এবং বর্তমান পাকিস্তান সরকারকে ‘আমদানি করা’ বলেছেন। তিনি বলেন, দেশের লাগাম যখন আমদানি করা সরকারের হাতে থাকবে তখন মূল্যস্ফীতি বাড়বে। তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, তাদের উচিত দোকানে গিয়ে ঘির দাম খুঁজে বের করা, যেমনটা তারা তার সরকারে করত। ইমরান খান বলেন, মার্কিন ডলারের বিপরীতে পাকিস্তানি মুদ্রার মূল্য ক্রমাগত কমছে কারণ দেশের অর্থ লুট করে বিদেশে পাঠানো হচ্ছে। আসুন আমরা আপনাকে বলি যে চলতি বছরের 9 এপ্রিল জাতীয় পরিষদে আস্থা ভোট না পাওয়ায় ইমরান খানকে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করতে হয়েছিল। ইউনাইটেড বিরোধী দল শাহবাজ শরীফের নেতৃত্বে পাকিস্তানে নতুন সরকার গঠন করে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *