প্রভাত বাংলা

site logo
রাশিয়া

ইউক্রেন রাশিয়া সংকট: বিশ্বের সবচেয়ে বড় বিমান ধ্বংস করেছে রাশিয়ার সেনাবাহিনী

ইউক্রেন যুদ্ধে বিশ্বের সবচেয়ে বড় বিমান ভূপাতিত করেছে রাশিয়া। ইউক্রেনের তৈরি বিশ্বের বৃহত্তম বিমান, আন্তোনোভ-225 মারিয়া, কিয়েভের কাছে হোস্টোমেল বিমানবন্দরে রাশিয়ার হামলায় গুলি করে ধ্বংস করা হয়েছিল। বিমানটি রাশিয়ান সেনাবাহিনী দ্বারা আক্রমণ করা হয়, যার পরে এটি আগুন ধরে যায়। এই বিমানটি ইউক্রেনের রাষ্ট্রীয় প্রতিরক্ষা সংস্থা ইউক্রবোরনপ্রম দ্বারা তৈরি করা হয়েছে। রোববার ইউক্রেন বিমানটি ভূপাতিত করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা সংস্থা রবিবার টেলিগ্রামে তাদের বৃহত্তম বিমানটি গুলি করার বিষয়ে জানিয়েছে।

যদিও এটি যাত্রীবাহী বিমান নয়, মালবাহী বিমান ছিল। ইউক্রবোরনপ্রম জানিয়েছে, ইউক্রেনের বৃহত্তম পণ্যবাহী মিভান অ্যান-225 মরিয়া রাশিয়ার হামলায় নিহত হয়েছে। হোস্টোমেল বিমানবন্দরে এ হামলার ঘটনা ঘটে। উড়োজাহাজটি উচ্চ ব্যয়ে নির্মিত হয়েছিল এবং এটিকে জীবিত করা কঠিন হবে। ইউক্রেনীয় সংস্থাটি বলছে যে এই বিমানটিকে পুনর্নির্মাণ করতে 3 বিলিয়ন ডলারের বিশাল ব্যয় লাগবে এবং আরও দীর্ঘ সময় লাগবে। এই বিমানটি 1980 সালে উত্পাদিত হয়েছিল। এটি বিশ্বের বৃহত্তম এবং ভারী বিমান হিসাবে বিবেচিত হয়।

Read More :

সিনহুয়া নিউজ এজেন্সির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই বিমানের মাধ্যমে 640 টন লাগেজ লোড করা যাবে। উল্লেখ্য, গত সপ্তাহ থেকে রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে যুদ্ধ চলছে, যেখানে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চলছে। একদিকে রাশিয়ার সেনাবাহিনী ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে পৌঁছেছে, অন্যদিকে ইউক্রেন বলছে, তারা সাড়ে চার হাজার রুশ সেনাকে হত্যা করেছে। এদিকে দুই দেশই আলোচনার ইঙ্গিত দিয়েছে। আজ বেলারুশে রাশিয়া ও ইউক্রেনের প্রতিনিধিদের মধ্যে আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে। এই সময়ের মধ্যে যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *