প্রভাত বাংলা

site logo
পৌরসভা নির্বাচন

উত্তর 24 পরগনা পৌরসভা নির্বাচন: বসিরহাট ও হরিণঘাটায় গ্রেফতার বিজেপি প্রার্থী

উত্তর 24 পরগনা: কোথাও ইভিএম ভাঙচুর করা হয়েছে। কোথাও লন্ডভন্ড অবস্থায় ভোটিং মেশিন। বারাসত থেকে বসিরহাট বা রাজপুর-সোনারপুর থেকে ভাটপাড়া বা হরিণঘাটা থেকে রঘুনাথগঞ্জ। সেই শহরে গণতন্ত্রের উৎসবে দেখা গেল এই চিত্র। ভোট শুরুর দুই ঘণ্টার মধ্যে ছয় জেলায় নয়টি ইভিএম ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। গ্রেফতার করা হয়েছে দুই বিজেপি প্রার্থীকে।

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সকাল থেকেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে রাজপুর-সোনারপুর পৌরসভার ১৭ নম্বর ওয়ার্ড। বিদ্যানিধি স্কুল, সারদা বিদ্যাপীঠ ও হরকালী বিদ্যাপীঠের বুথে ইভিএম ভাঙচুর করা হয়েছে। বারাসতের চন্দনপুর অবৈতনিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বুথে ইভিএম ভাঙচুরের ঘটনায় উত্তেজনা চলছে। অভিযুক্ত বিজেপি প্রার্থীর সঙ্গে কার্যত সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন তৃণমূল কর্মীরা। বিজেপি প্রার্থীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। “তৃণমূল ফলস ভোট দিচ্ছে তাই আমি ইভিএম ভেঙ্গেছি,” তিনি স্পষ্ট করে বললেন।

বসিরহাটের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী সুজয় চন্দ্রকে দুটি বুথ ভাঙচুরের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে। একই চিত্র ভাটপাড়া পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডেও। শ্রীগান্ধী বিদ্যাপীঠে ইভিএম ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে ওই ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থীর স্বামীর বিরুদ্ধে। নদীয়া জেলার হরিণঘাটার 2 নম্বর ওয়ার্ডেও ইভিএম ভাঙচুর করা হয়েছে। গ্রেফতার করা হয় ওই ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী সুরেশ সিকদারকে।

মুর্শিদাবাদের রঘুনাথগঞ্জ হাইস্কুলের বুথেও ইভিএম ভাঙচুর করা হয়েছে। রাজ্য নির্বাচন কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে, ইভিএম পরিবর্তনের পর সেই বুথে ফের ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *