প্রভাত বাংলা

site logo
Putin

মার্কিন-ন্যাটোকে পুতিনের প্রকাশ্য হুমকি

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন অবশেষে ইউক্রেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন। বৃহস্পতিবার সকালে রাশিয়ান টেলিভিশনে ভ্লাদিমির পুতিন এক বিবৃতি দেন। তিনি বলেন, আমরা ইউক্রেনে একটি বিশেষ সামরিক অভিযান শুরু করছি, যার উদ্দেশ্য হচ্ছে নিরস্ত্রীকরণ। আমাদের উদ্দেশ্য পুরো ইউক্রেন দখল করা নয়। নাম না নিয়ে আমেরিকা ও ন্যাটোকেও হুমকি দিয়েছেন পুতিন। তিনি বলেন, যারা আমাদের অভিযানে হস্তক্ষেপ করবে তাদের পরিণতি ভোগ করতে হবে।

সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পুতিনের এই বক্তব্যের পরই ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের কাছে বহু বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। এছাড়া বিদ্রোহীদের দখলে থাকা এলাকা থেকেও বিস্ফোরণের খবর আসছে।

পুতিনের বক্তব্য, সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ৩টি বিষয়

  1. ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনী অস্ত্র জমা দিয়েছে

পুতিন টেলিভিশনে তার বিবৃতিতে বলেছেন- আমরা ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীকে তাদের অস্ত্র জমা দেওয়ার জন্য আবেদন করছি। ইউক্রেনের সেনাবাহিনী রাশিয়াকে ভয় দেখিয়েছে এবং এসবই ঘটছে নব্য-নাৎসিদের নির্দেশে। আমরা এই পদক্ষেপ নিচ্ছি শুধুমাত্র পূর্ব ইউক্রেনে 2014 সালে গঠিত বিচ্ছিন্নতাবাদী এলাকাগুলোর নির্দেশে যারা আমাদের সাহায্য চেয়েছিল।

  1. আমাদের লক্ষ্য হল গণহত্যার শিকার বিদ্রোহীদের রক্ষা করা

গত ৮ বছর ধরে যারা নির্যাতন ও গণহত্যার শিকার হচ্ছেন তাদের রক্ষা করাই আমাদের মূলমন্ত্র। এ জন্য আমরা ইউক্রেনে নিরস্ত্রীকরণের পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছি। যারা জনসাধারণের বিরুদ্ধে রক্তক্ষয়ী অপরাধ করেছে তাদের আমরা আদালতে নিয়ে যাব। এর মধ্যে রাশিয়ান ফেডারেশনের লোকজনও রয়েছে।

  1. হস্তক্ষেপ এবং আমাদের মানুষ ভয়ভীতি, তারপর পরিণতি হবে

যদি কেউ ইউক্রেন এবং রাশিয়ার মধ্যে হস্তক্ষেপ করার চেষ্টা করে, আমাদের জনগণ এবং আমাদের দেশকে ভয় দেখানোর চেষ্টা করে, তাদের জানিয়ে দিন যে রাশিয়া অবিলম্বে প্রতিক্রিয়া জানাবে এবং তাদের এমন পরিণতি ভোগ করতে হবে যা তারা কল্পনাও করেনি। যে কোনো পরিস্থিতির জন্য আমরা প্রস্তুত।

ইউক্রেনের উত্তর- নিজেদের রক্ষা করব এবং জিতব
হামলার পরপরই ইউক্রেন একটি বিবৃতি জারি করে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমেত্রো কুলেবা বলেছেন, ‘আমরা নিজেদের রক্ষা করব এবং যুদ্ধে জিতব। পুতিন এইমাত্র ইউক্রেন আক্রমণ করেছেন। ইউক্রেনের শান্তিপ্রিয় শহরগুলো হামলার শিকার হচ্ছে। এটি রাশিয়ার আগ্রাসী আচরণ এবং এর কারণেই হামলা হয়েছে। বিশ্বকে পুতিনকে থামাতে হবে। এই সময় বিশ্বকে অভিনয় করতে হবে।

বিডেন বলেছেন- মানবতার ক্ষতি হবে, ধ্বংস হবে
পুতিনের ঘোষণার পরপরই মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এই পদক্ষেপের নিন্দা করেছেন। বাইডেন বলেছেন- পুতিনের সিদ্ধান্তের খুব খারাপ পরিণতি হবে। এ সিদ্ধান্তের ফল মানবতা ভোগ করবে, জনজীবন বিপর্যস্ত হবে। এই হামলার ফলে সৃষ্ট ধ্বংসযজ্ঞ এবং যে পরিমাণ প্রাণহানি ঘটবে তার জন্য একাই রাশিয়া দায়ী থাকবে। আমেরিকা ও তার মিত্ররা এই সময়ে ঐক্যবদ্ধ এবং এই সিদ্ধান্তের সুস্পষ্ট জবাব দেবে। বিশ্ব রাশিয়াকে জবাবদিহি করবে।

Read More :

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভসহ অনেক শহরে বিস্ফোরণ
পুতিনের বক্তব্যের পরপরই ইউক্রেনের বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত এলাকা এবং রাজধানী কিয়েভে বড় ধরনের বিস্ফোরণের খবর পাওয়া গেছে। খবরে বলা হয়েছে, ক্রমাতোস্কে ২টি বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। ক্রিমিয়া হয়ে ইউক্রেনে প্রবেশ করছে রুশ সেনারা। সীমান্তে দুই লাখের বেশি রুশ সেনা মোতায়েন রয়েছে। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের মাঝামাঝি সময়ে পুতিন এ ঘোষণা দেন। শুধুমাত্র রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা নিয়ে এই বৈঠক চলছে, এখন রাশিয়ার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *