প্রভাত বাংলা

site logo
159

রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিরোধী প্রার্থী হবেন নীতীশ কুমার?

ডিজিটাল ডেস্ক: বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার কি রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে লড়বেন? প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে দেখা হওয়ার পেছনে তার প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হওয়া কি আসল কারণ? কয়েকটি গণমাধ্যমের খবরের পর এমন প্রশ্ন উঠেছে রাজনৈতিক মহলে। বলা হচ্ছে যে তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও এই অনুশীলন শুরু করেছেন এবং প্রশান্ত কিশোরকে নীতীশ কুমারকে অন্যান্য দলের সাথে যোগাযোগ করার জন্য প্রস্তুত করার জন্য একটি মাধ্যম করা হয়েছে।

চলতি বছরের জুলাই-আগস্টে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কেসিআর, যিনি এই বিষয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে অত্যন্ত সোচ্চার, তিনি টুকরো টুকরো করা শুরু করেছেন। তিনি অ-বিজেপি এবং অ-কংগ্রেস দলগুলিকে একত্রিত করার উদ্যোগ নিয়েছেন।

চলতি মাসে প্রশান্ত কিশোর ও কেসিআরের মধ্যে বৈঠক হয়েছিল। এরপর বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের সঙ্গে দেখা করেন প্রশান্ত কিশোর। মনে রাখবেন যে অতীতে, তেজস্বী যাদব কেসিআর ছাড়াও শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে এবং জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস পার্টির প্রধান শরদ পাওয়ারের সাথেও দেখা করেছিলেন। এই সমস্ত বৈঠকের এজেন্ডা রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের মাধ্যমে বিজেপিকে ধাক্কা দেওয়ার পরিকল্পনা বলে মনে করা হচ্ছে। কেসিআর চেষ্টা করেছেন যে কংগ্রেস ছাড়া অন্য সব দল যেমন টিএমসি, এসপি, এএপি, আরজেডি, জেডিইউকে একত্রিত করা হোক। কেসিআর আশা করছেন নীতীশ কুমার খুব শক্তিশালী প্রার্থী হবেন এবং কংগ্রেসও তাকে সমর্থন করতে বাধ্য হতে পারে।

পাল্টে যাবে বিহারের রাজনীতি
বিরোধী পক্ষের নীতীশ কুমারকে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী করার আগে বহুবার জল্পনা ছিল যে বিজেপি নীতীশকে উপ-রাষ্ট্রপতি করতে পারে। তবে এখন নতুন সমীকরণের উদ্ভবের পর বিহারের রাজনীতিতে ভূমিকম্প হতে পারে। বিরোধীদের প্রস্তাব মেনে নিলে বিজেপি থেকে তাঁর বিচ্ছেদ নিশ্চিত বলেই মনে করা হচ্ছে। এমতাবস্থায় আরজেডি ও জেডিইউ একত্রিত হলে ক্ষমতার বাইরে যেতে হবে বিজেপিকে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *